বেলা শেষের ২ উইকেটে বাংলাদেশের স্বস্তি

স্টাফ রিপোর্টার: কেন উইলিয়ামসনের শতকে ভর করে বড় সংগ্রহের দিকেই এগুচ্ছিলো নিউজিল্যান্ড। দিনের শেষ দু ওভারে দুটি উইকেট কিছুটা স্বস্তি এনে দিয়েছে ৮৯ তম ওভারে সাকিব আল হাসানের দারুণ একটি বলে পরিষ্কার এলবিডব্লিউ হন উইলিয়ামসন। আর দিনের শেষ ওভারের পঞ্চম বলে অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালামকে এলবিডব্লিউ করেন আব্দুর রাজ্জাক। এ উইকেটের পরই আম্পায়াররা প্রথম দিনের খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করলে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৫ উইকেটে ২৮০ রান।

গতকাল বুধবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টেস্টে টস জিতে ব্যাটিঙের সিদ্ধান্ত নেয়া নিউজিল্যান্ডকে ভালো সূচনা এনে দেন হামিশ রাদারফোর্ড ও পিটার ফুলটন। জিম্বাবুয়ে সফরে দারুণ বোলিং করা রবিউল হোসেন এবং ছন্দে থাকা রুবেল হোসেনকে সকালে খুব সহজেই সামলেছেন দু উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। বাধ্য হয়েই ষষ্ঠ ওভারে আব্দুর রাজ্জাক ও নবম ওভারে সোহাগ গাজীকে বোলিঙে আনেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। সকালের প্রথম ঘণ্টায় দু বছর পর টেস্ট খেলতে নামা রাজ্জাক আর সোহাগের বিপক্ষে ভীষণ সতর্ক ছিলেন রাদারফোর্ড ও ফুলটন। কাজ হচ্ছিলো না দেখে বিশতম ওভারে আক্রমণে আনেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ সফল সাকিব আল হাসানকে।

ভীষণ মন্থর উইকেটে সাকিবও কোনো প্রভাব ফেলতে পারেননি। অবশেষে সাফল্য আসে অফস্পিনার সোহাগের হাত ধরে। তার ঝুলিয়ে দেয়া একটি বল লংঅফের ওপর দিয়ে উড়িয়ে সীমানা পার করতে গিয়ে টাইমিঙে গড়বড় করে মিডঅফে রাজ্জাকের হাতে সহজ ক্যাচ দেন রাদারফোর্ড (৩৪)।

২৩তম ওভারে বিদায় নেয়ার আগে ৫৭ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান। বাংলাদেশে এটাই অতিথিদের সবচেয়ে ভালো সূচনা। দ্বিতীয় উইকেটে স্বাগতিক বোলারদের আরো হতাশ করেছেন রাদারফোর্ড ও উইলিয়ামসন। তবে চা-বিরতিতে যাওয়ার আগে পিটার ফুলটনের সাথে উইলিয়ামসের রেকর্ড জুটি ভাঙেন নাসির হোসেন।

উইকেট পড়ছে না দেখে নাসিরের হাতে ৬৩তম ওভারে বল তুলে দিয়েছিলেন অধিনায়ক মুশফিকুর। ওভারের শেষ বলে অফস্টাম্পের বাইরে খাটো লেন্থের বল সজোরে হাঁকাতে গিয়ে কাভারে মমিনুল হকের হাতে ধরা পড়েন ফুলটন (৭৩)। ফুলটনের ১৯৮ বলের ইনিংসে ছিল ৭টি চার ও ১টি ছক্কা। এ রান করা পথে দ্বিতীয় উইকেটে উইলিয়ামসনের সাথে ১২৬ রানের জুটি গড়েন তিনি। বাংলাদেশের বিপক্ষে এ জুটিতে এটাই সর্বোচ্চ রান। পাঁচ বছর আগে এ মাঠেই ৯০ রানের জুটি গড়েছিলেন অ্যারন রেমন্ড ও জেসি রাইডার।

তৃতীয় উইকেটে রস টেইলরের সঙ্গে ৬১ রানের আরেকটি চমৎকার জুটি গড়েন উইলিয়ামসন। নতুন বল নেয়ার আগের ওভারে বিপজ্জনক টেইলরকে ফিরিয়ে দিয়ে দলকে তৃতীয় সাফল্য এনে রাজ্জাক। ব্যাটের কানায় বল লাগিয়ে কাভারে বদলি নাঈম ইসলামের হাতে সহজ ক্যাচ দেন টেইলর (২০)।

দিনের শেষ ওভারের আগের ওভারে শতক হাকানো উইলিয়ামসনকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে স্বাগতিকদের আরেকটি সাফল্য এনে দেন সাকিব। বিদায় নেয়ার আগে অবশ্য টেস্টে চতুর্থ ও বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম শতকটি আদায় করে নেন ২৩ বছর বয়সী উইলিয়ামসন (১১৪)। তার ২১০ বলের ইনিংসে ছিল ১২টি চার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: নিউজিল্যান্ড: ২৮০/৫ (ফুলটন ৭৩, রাদারফোর্ড ৩৪, উইলিয়ামসন ১১৪, টেইলর ২৮, ম্যাককালাম ২১, মার্টিন ০*; রাজ্জাক ২/১০০, নাসির ১/৫, সাকিব ১/৩৪, সোহাগ ১/৫৬)

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *