বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে পাকিস্তানকে ৬১ রানে হারাল নিউজিল্যান্ড

মাথাভাঙ্গা মনিটর: কেন উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরি ও পরে টিম সাউদির দুর্দান্ত বোলিংয়ে বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম ওয়ানডেতে ডাক-ওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে পাকিস্তানকে ৬১ রানে পরাজিত করেছে নিউজিল্যান্ড। এর ফলে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা। একইসাথে পাকিস্তানের ওয়ানডেতে টানা নয় ম্যাচের জয়ের অবসান হলো। ১১৭ বলে সর্বোচ্চ ১১৫ রান করে উইলিয়ামসন হয়েছেন ম্যাচ সেরা। উইলিয়ামসনের তার ব্যাটে ভর করেই বৃষ্টি বিঘ্নিত দিনে নিউজিল্যান্ড ৭ উইকেটে ৩১৫ রানের বড় ইনিংস সংগ্রহ করে। ৩১তম ওভারে ৬ উইকেটে ১৬১ রান সংগ্রহ করে ধুকতে থাকা পাকিস্তানের জন্য বৃষ্টি কিছুটা স্বস্তি ফিরিয়ে আনে। এই সময়ে ম্যাচ বন্ধ হবার পরে অবশ্য আর শুরু করা সম্ভব হয়নি। পাকিস্তানী ওপেনার ফখর জামান অপরাজিত ছিলেন ৮২ রানে। ফখর অবশ্য সতীর্থদের কাছ থেকে তেমন কোন সহযোগিতাই পাননি। প্রথম ওভারেই সাউদি পরপর দুই বলে আজহার আলী (৬) ও বাবর আজমকে (০) এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে ফেললে সফরকারীরা চাপে পড়ে। হ্যাটট্রিক মিস করলে ১৩ রানে শোয়েব মালিককে উইকেটের পেছনে ক্যাচে পরিণত করেন এই পেসার। অন্যদিকে ট্রেন্ট বোল্টের বাউন্সারে মাত্র এক রানে সাজঘরের পথে হাঁটেন মোহাম্মদ হাফিজ। আর তখনই নবম ওভারে মাত্র ৩৭ রানে পাকিস্তানের ৪ উইকেটের পতন হয়। এর আগে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়া পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে কোনো সুসংবাদ দিতে পারেননি বোলাররা। যদিও খারাপ আবহাওয়ার কারণে ২০ ওভারেরও বেশি সময় ম্যাচ পরিচালনাকারী দুআম্পায়র বারবার বেল উঠিয়ে ম্যাচ বন্ধ করার প্রস্তুতি নিয়েছেন। কিন্তু প্রচণ্ড বাতাসে উইলিয়ামসনের ব্যাট করতে কোন অসুবিধাই হয়নি। ক্যারিয়ারের ১০ম ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নিতে তিনি আটটি বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন। যদিও মাত্র ২৬ রানে উইকেটের পেছনে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের হাতে একবার জীবন ফিরে পেয়েছিলেন উইলিয়ামসন। হেনরি নিকোলসকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে উইলিয়ামসন ৮০ বলে ৯০ রানে পার্টনারশিপ গড়ে তুলেন। ৪৮ ওভারে রুম্মান রাইসে বলে হাসান আলীর হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে শেষ পর্যন্ত থামেন উইলিয়ামসন। কোলিন মুনরো (৫৮) ও নিকোলস (৫০) উভয় হাসানের বলে কট বিহাইন্ড হয়েছে। রস টেইলরের (১২) উইকেট তুলে নিয়ে হাসান ৬১ রানে ৩ উইকেট সংগ্রহ করে পাকিস্তানের সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন। প্রথম উইকেটে মার্টিন গাপটিলকে সাথে নিয়ে মুনরো ৮৩ রানের ইনিংস খেলেন। মুনরো ৪৮ রানে ফখরের প্রথম ওয়ানডে উইকেটে পরিণত হন। আগামী মঙ্গলবার নেলসনে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *