বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলকে তামিমের চিঠি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বকেয়া পাওনার দাবিতে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) গভর্নিং কাউন্সিলকে চিঠি দিয়েছে গত মরসুমের দুরন্ত রাজশাহীর তারকা তামিম ইকবাল। চুক্তির অর্ধেক টাকা ইতোমধ্যে পেয়েছেন এ ওপেনার। কিন্তু গত মাসে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক জানায়, টুর্নামেন্ট চলাকালে কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে দেশ ছাড়ায় আর টাকা দেয়া হবে না তাকে। রাজশাহীর সতীর্থরা ২৫ ভাগ টাকা পেয়েছেন, সম্প্রতি এমন খবর শুনে বিপিএল সভাপতি আফজালুর রহমান সিনহাকে চিঠি দিয়েছেন তামিম। এ চিঠিতে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক মুশফিকুর রহমানের বিবৃতিও উল্লেখ করেছেন তিনি। চিঠি পাঠানোর খবরটি একটি ক্রীড়া সংবাদ মাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন তামিম। আশা করছেন ইতিবাচক সাড়া পাবেন, ‘আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি অনুমতি না চেয়ে আমি বিদেশ যাইনি। সে সময় আমি সংশ্লিষ্ট সব কর্মকর্তাদের জানিয়েছিলাম।’ দলের ১৩ ম্যাচের ১০টিতে খেলেছেন তামিম। এ বিষয় উল্লেখ করে চিঠিতে জানিয়েছেন, কব্জির চোটে তিনটি ম্যাচে খেলা হয়নি তার। এ তিন ম্যাচের টাকা দাবি করেননি তিনি। তবে বাকি ১০ ম্যাচের পাওনা টাকাগুলো চান এই তারকা ব্যাটসম্যান। দু সপ্তা পর শ্রীলঙ্কা সফর থাকায় রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে রাজশাহীর ম্যাচে তামিমকে বিশ্রামে রাখার অনুরোধ জানিয়েছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শেষ দুটি ম্যাচ খেলা হয়নি তার। তবে তামিমের দাবি, সংক্ষিপ্ত সময়ের এ বিদেশ সফরে সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েছিলেন তিনি।

অবশ্য গত ৩০ আগস্ট মুশফিকুরের দাবি, তামিম কাউকে না জানিয়ে বিদেশ গিয়েছিলো। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তামিম বলেছিলেন, ‘কব্জির চোট নিশ্চিত হওয়ার পরই আমি মুশফিকুর ও বোর্ড প্রেসিডেন্টকে সেটা জানাই। আমাদের কোচ খালেদ মাসুদের সাথেও কথা বলেছিলাম। পরে আমি যখন শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে গিয়েছিলাম সেখানেও আবার ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকের সাথে দেখা করেছিলাম।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *