বাংলাদেশে কেন আসছে না পাকিস্তান?

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাকিস্তানের মাটিতে একটি টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতায় খেলার আমন্ত্রণ ছিলো বাংলাদেশের। বিসিবি সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় জুলাই মাসে বাংলাদেশে না আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান।
আগামী জুলাইয়ে দুই টেস্ট আর তিন ওয়ানডের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা পাকিস্তানের। কিন্তু পিসিবি হঠাৎই এই সফর না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর কারণ হিসেবে পিসিবি সভাপতি শাহরিয়ার বাংলাদেশের অসহযোগিতার বিষয় তুলে ধরেন, ‘আমরা বাংলাদেশে দুটি সফর করেছি। কিন্তু এই দুই সফরের প্রতিদান বাংলাদেশের কাছ থেকে না পাওয়ায় আমরা তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশে যেতে পারি না। এ বছর বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফরের ব্যাপারে আমরা আলোচনা করেছিলাম। বাংলাদেশ রাজি না হওয়ায় আমরা জুলাই মাসে বাংলাদেশ সফর স্থগিত করেছি।’
২০০৩ সালে ৩ টেস্ট ও ৫ ওয়ানডে খেলতে প্রথমবারের মতো পাকিস্তান সফর করে বাংলাদেশ। এরপর পাকিস্তানের মাটিতে ওয়ানডে খেললেও টেস্ট আর খেলেনি। ২০০৮ সালে এশিয়া কাপ খেলতে শেষবারের মতো পাকিস্তান সফর করে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর পাকিস্তান বাংলাদেশে প্রথম আসে ২০০২ সালের শুরুতে। সে সফরে দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে খেলেছিলো তারা। এরপর ২০১১-১২ সালে ও ২০১৫ সালে পরপর দুবার বাংলাদেশ সফর করে পাকিস্তান। ২০১৫ সালে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করে বাংলাদেশ। জয় পায় একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচটিতেও। টেস্ট সিরিজে অবশ্য হারতে হয় ১-০ ব্যবধানে। ২০০৯ সালের মার্চে লাহোরে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলের বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধ পাকিস্তানের মাটিতে। ২০১৫ সালে জিম্বাবুয়ে অবশ্য পাকিস্তান সফর করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *