ফের আলাদা হচ্ছে ফিফা বর্ষসেরা-ব্যালন ডি’অর

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: এক সময় দুটো পুরস্কার ছিলো আলাদা। ২০১০ সালে একীভূত হয়ে যায় ফিফা বর্ষসেরা আর ব্যালন ডি’অর পুরস্কার। কিন্তু ফিফা ও ফরাসি ম্যাগাজিন ফ্রান্স ফুটবলের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় আলাদা হয়ে যাচ্ছে পুরস্কার দুটো। গতকাল শুক্রবার বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা জানিয়েছে, ‘ফিফা আর ফ্রান্স ফুটবলের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে গত জানুয়ারিতে। আগস্টের শুরুতেই আমরা ফ্রান্স ফুটবলকে জানিয়ে দিয়েছিলাম যে আর চুক্তির নবায়ন করা হবে না।’ আর তাই আগের মতো আলাদাভাবে দেয়া হবে ফুটবলের মর্যাদাজনক দুটো পুরস্কার।

ফ্রান্স ফুটবলের হাত ধরে ব্যালন ডি’অর চালু হয়েছিল ১৯৫৬ সালে। সাংবাদিকদের ভোটে বছরের সেরা ফুটবলার নির্বাচন করতো ফুটবলবিষয়ক ম্যাগাজিনটি। প্রথমবার পুরস্কারটা জিতেছিলেন ইংল্যান্ডের স্ট্যানলি ম্যাথিউজ। ফিফার সঙ্গে একত্রিত হওয়ার আগে সর্বোচ্চ তিনবার করে এ পুরস্কার জিতেছিলেন তিন ‘গ্রেট’ ফ্রান্সের মিশেল প্লাতিনি এবং নেদারল্যান্ডসের ইয়োহান ক্রুইফ ও মার্কো ফন বাস্তেন।

১৯৯৪ পর্যন্ত শুধু ইউরোপীয় ফুটবলাররাই বিবেচিত হতেন এই পুরস্কারের জন্য। ১৯৯৫ সালে প্রথম ‘অ-ইউরোপীয়’ হিসেবে ব্যালন ডি’অর জিতেছিলেন এসি মিলানের লাইবেরিয়ান তারকা জর্জ উইয়াহ। ২০১০ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত ছয়টি ফিফা ব্যালন ডি’অর পুরস্কারের চারটিই জিতে নিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। বাকি দু’বার এ ট্রফি ছিলো মেসির সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হাতে।

এ বছর চ্যাম্পিয়নস লিগ আর ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের মতো দুটো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছেন রোনালদো। ফুটবল বিশেষজ্ঞদের অনেকের ধারণা, আলাদা হলেও দুটো পুরস্কারই জিতে নিতে পারেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ তারকা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *