পাকিস্তানের টি–টোয়েন্টি অধিনায়ক আফ্রিদি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন মোহাম্মদ হাফিজ। এরপর থেকে এ পদটা খালিই পড়ে ছিলো। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) গতকাল এই পদে নিয়োগ দিয়েছে শহীদ আফ্রিদিকে। পাকিস্তান ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব নিয়ে চিরন্তন ‘মিউজিক্যাল চেয়ারে’ প্রায় তিন বছর পর আবার ভাগ্য খুলেছে আফ্রিদির। ভাগ্য খুলেছে, কারণ এর আগেও পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ২০১১ সালের মে মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের পর কোচ ওয়াকার ইউনুস ও তৎকালীন বোর্ড সভাপতি ইজাজ বাটের সাথে বিরোধে জড়িয়ে তা খুইয়েছিলেন তিনি। এ দফায় আফ্রিদিকে মোটামুটি দীর্ঘ মেয়াদেই নিয়োগ দেয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

পিসিবি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আফ্রিদিকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করতে হবে। একই বিবৃতিতে টেস্ট ও ওয়ানডে দলে মিসবাহ-উল-হকের অধিনায়কত্ব নিশ্চিত করা হয়েছে ২০১৫ সাল পর্যন্ত। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ খুইয়ে মিসবাহর অধিনায়কত্ব পড়ে গিয়েছিলো হুমকির মুখেই। আগের দফায় অধিনায়ক থাকার সময় আফ্রিদি ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। এর মধ্যে তিনি জয় পেয়েছিলেন আটটিতে, হেরেছিলেন ১১টিতে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *