পাকিস্তানকে হারিয়ে সমতায় দক্ষিণ আফ্রিকা

মাথাভাঙ্গা মনিটর: দুবাইয়ে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে পাকিস্তানকে সহজেই এক ইনিংস ও ৯২ রানে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। দুই ম্যাচের সিরিজ তাই শেষ হয়েছে ১-১ সমতায়। আবুধাবিতে প্রথম টেস্ট পাকিস্তান ৭ উইকেটে জিতেছিলো। ৩০ অক্টোবর থেকে শুরু হবে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। গতকাল শনিবার দু্বাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৪ উইকেটে ১৩২ রান নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে পাকিস্তান। ইনিংস হার এড়াতে তখনো তাদের প্রয়োজন ছিলো ২৮৬ রান।
দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মিসবাহ-উল-হক ও আসাদ শফিক সতর্কতার সাথে, ধীর-স্থিরভাবে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন। মধ্যাহ্ন-বিরতি পর্যন্ত পাকিস্তানের কোনো ক্ষতি হতে দেননি তারা। চা-বিরতির কিছুক্ষণ আগে প্রথম ধাক্কা খায় স্বাগতিক দল। সাফল্য পেতে মরিয়া দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিত বল তুলে দিয়েছিলেন অনিয়মিত বাঁহাতি স্পিনার ডিন এলগারের হাতে। সেই এলগারই মিসবাহর ‘ঘাতক’। প্রথম স্লিপে জ্যাক ক্যালিসের তালুবন্দী হয়ে, ১২ রানের জন্য পঞ্চম টেস্ট শতক না পাওয়ার হতাশা নিয়ে ফিরতে হয়েছে পাকিস্তান অধিনায়ককে। ২১৮ বলে খেলা ৮৮ রানের ইনিংসটিতে ছিলো ৬টি চার ও একটি ছক্কা। মিসবাহ-শফিকের পঞ্চম উইকেট জুটির অবদান ১৯৭ রান। এলগারের প্রথম টেস্ট উইকেট পাওয়ার আনন্দে উজ্জীবিত দক্ষিণ আফ্রিকানরা ঘুরে দাঁড়ায় এরপর। উইকেটও পড়তে থাকে নিয়মিত বিরতিতে। শফিক একপ্রান্ত ধরে রাখলেও পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়ে যায় ৩২৬ রানে। আহত জুলফিকার বাবর ব্যাট করতে পারেননি। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়া শফিকের ব্যাট থেকে আসে অনবদ্য ১৩০ রান। এটা তার চতুর্থ টেস্ট শতক। ৩২০ বল দীর্ঘ ইনিংসটি সাজানো ১৫টি চার ও একটি ছক্কায়। তিনটি করে উইকেট নেন দুই স্পিনার জেপি ডুমিনি ও ইমরান তাহির।
সংক্ষিপ্ত স্কোর: পাকিস্তান: ৯৯ ও ৩২৬, শফিক ১৩০, দক্ষিণ আফ্রিকা: ৫১৭,  স্মিথ ২৩৪, ডি ভিলিয়ার্স ১৬৪। ফলাফল: দক্ষিণ আফ্রিকা এক ইনিংস ও ৯২ রানে জয়ী ম্যাচ সেরা: গ্রায়েম স্মিথ সিরিজ সেরা: এবি ডি ভিলিয়ার্স

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *