নেইমার মানেই ফাউল!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: হালকাপাতলা গড়নের কারণে সত্যিই দ্রুত পড়ে যান, নাকি ইচ্ছে করেই বেশি অভিনয় করেন প্রতিপক্ষকে বিপদে ফেলার জন্য? নেইমারকে নিয়ে এ বিতর্কটা চলছে বেশ কিছুদিন ধরেই। সাম্প্রতিক সময়ে বিতর্কটা আরও উসকে দিয়েছে নতুন এক পরিসংখ্যান। লা লিগায় এখন পর্যন্ত বেশি ফাউলের শিকার হয়েছেন এ ব্রাজিলিয়ান তারকা। তার কারণে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের কার্ড দেখার ঘটনাও সবচেয়ে বেশি। লা লিগার প্রথম আট ম্যাচেই নেইমার ফাউলের শিকার হয়েছেন ৩২ বার। তার পরেই আছেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ডিয়েগো কস্তা (৩১) ও রিয়াল মাদ্রিদের ইসকো (২৭)। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে নেইমারকে ফাউল করে এখন পর্যন্ত হলুদ কার্ড দেখতে হয়েছে প্রতিপক্ষের আটজন খেলোয়াড়কে। সেল্টিকের ব্রাউনকে তো মাঠই ছাড়তে হয়েছিলো লালকার্ড দেখে। চেলসি, ভ্যালাদোলিদ, সেল্টিকের কোচেরা তো বেশ ক্ষেপেই আছেন নেইমারের ওপর। তাদের মতে, ব্রাজিলিয়ান এ ফরোয়ার্ড ইচ্ছে করেই পড়ে যান সুবিধা আদায়ের জন্য।তবে ভিন্নমতও আছে অনেকের। নেইমারের খেলার ধরন, দ্রুতগতির ড্রিবলিঙের কারণে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রা ফাউল করতে বাধ্য হন বলেও মনে করেন অনেকে। স্প্যানিশ পত্রিকা ‘মার্কা’ পরিচালিত একটি জরিপ তেমনটাই সাক্ষ্য দিয়েছে। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৬৩.৯ শতাংশই মনে করেন যে, নেইমার সত্যিই ফাউলের শিকার হন। ৩৬.১ শতাংশের মতে, নেইমারের মধ্যে দ্রুত পড়ে যাওয়ার প্রবণতা আছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *