নেইমারের বান্ধবী-বিচ্ছেদ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: সময়টা সত্যিই ভালো যাচ্ছে না নেইমারের। চোট, চুক্তি-বিতর্কে খুব বাজে সময় কাটাচ্ছেন এ ব্রাজিলীয় তারকা। মরার ওপর খাঁড়ার এক ঘা খেলেন এরই মধ্যে। বান্ধবী ব্রুনা মার্কুইজেন তার সাথে সব সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা জানিয়ে দিয়েছেন। ব্রুনা মার্কুইজেন ব্রাজিলের জনপ্রিয় এক মডেল। নেইমারের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার কোনো কারণ তিনি না জানালেও ব্রাজিলীয় সংবাদমাধ্যম সন্দেহ করছে, ন্যু ক্যাম্পে আসার পর থেকে নেইমারের সাথে তার এক ধরনের মানসিক দূরত্ব তৈরি হয়। ব্যাপারটি মেনে নিতে না পেরেই মার্কুইজেনের এ সিদ্ধান্ত। অথচ, গত আগস্টে নেইমারের সাথেই বার্সেলোনা এসেছিলেন তিনি। নেইমারের অভিষেকের দিন ন্যু ক্যাম্পের গ্যালারিতে তিনি সবার দৃষ্টি কেড়েছিলেন বার্সার জার্সি গায়ে চড়িয়ে। নেইমার নিজে কিন্তু সম্পর্কটা টিকিয়ে রাখার আপ্রাণ চেষ্টাই করে যাচ্ছিলেন। এই তো গেল সপ্তাই ইনস্টাগ্রাম বার্তায় তিনি লিখেছিলেন, তুমি আমার হৃদয়জুড়েই আছো। তোমায় খুব মিস করি। এই মুহূর্তে তোমার কাছে যাওয়া যে আমার পক্ষে সম্ভব নয়। নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে নেইমারের সাথে তোলা সব ছবি মুছে দিয়ে সম্পর্কের ইতি টানার ঘোষণা দিয়ে দেন মার্কুইজেন। তবে ব্রাজিলের একটি পত্রিকা জানিয়েছে, আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্কোচ্ছেদ হলেও তারা বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছিলেন নতুন বছর শুরুর আনুষ্ঠানিকতার দিনেই।

এদিকে বান্ধবী-বিচ্ছেদের দিনই নেইমারের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা ঠুকেছে তার পুরোনো ক্লাব সান্তোস। তারা নেইমারের বাবার সাথে বার্সেলোনার করা চুক্তিতে উল্লিখিত অর্থের পরিমাণ জানতে চেয়েছে। বলেছে, বার্সেলোনার সাথে নেইমারের চুক্তিতে ধোঁয়াশা আছে। কী বিপদেই না পড়েছেন হালের এই সেনসেশন!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *