নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন সাবের

স্টাফ রিপোর্টার: গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন সাবের হোসেন চৌধুরী। সবাই মনে করেছে হয়তো তিনি প্যানেলের ঘোষণা দেবেন। তবে প্যানেল ঘোষণা নয়, সাংবাদিক সম্মেলনে উল্টো নির্বাচন বয়কটেরই ঘোষণা দিলেন বারিধারা ড্যাজলার্সের এ কাউন্সিলর। দেশের আদালতের ওপর সর্বোচ্চ সম্মাননা দেখিয়েই এমন সিদ্ধন্ত নিয়েছেন বলে জানান সাবের হোসেন। নির্বাচন বয়কট বিষয়ে তিনি বলেন, ২০১২ সালের ২১ নভেম্বরের সংশোধিত গঠণতন্ত্র অনুযায়ী নির্বাচনের কথা বলেছে আদালত। অথচ বিসিবি-এনএসসি-নির্বাচন কমিশন এগোচ্ছে ২৯ নভেম্বরের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী। আমরা এ নির্বাচনে অংশ নিলে আদালত অবমাননার দিকে চলে যাব। অবৈধ গঠণতন্ত্রের অধীনে আমরা নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারি না।

কাউন্সিলরের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করার আগেই ১৪ সদস্যের প্যানেল ঘোষণা করে সম্মিলিত পরিষদ। এটাই সম্মিলিত পরিষদের সাথে এনএসসি ও নির্বাচনের যোগসাজেশের প্রমাণ করে উল্লেখ করে সাবের হোসেন বলেন, শুনানির সময় প্যানেল পরিচিতি। অর্থাৎ তারা শতভাগ নিশ্চিত ছিলো যে, শুনানিতে তাদের কোনো কাউন্সিলর বাদ পড়বে না। এনএসসি ও নির্বাচন কমিশনের সাথে যোগসাজোশ ছাড়া এটা সম্ভব নয়। আমরা ১৭টি আপত্তি জমা দিয়েছিলাম যেগুলো বাতিল করা হয়েছে। কিন্তু কী কারণে তা বাতিল হলো তার কারণ দেখাতে পারেনি নির্বাচন কমিশন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *