ধাওয়ানের সেঞ্চুরিতে সিরিজ জিতলো ভারত

মাথাভাঙ্গা মনিটর: তা দেয়ার উপযুক্ত একটা গোঁফ। সেই গোঁফ পুরোনো হতে না-হতেই এবার মাথায় অদ্ভুতুড়ে এক টিকি। সেই সাথে বিচিত্র উদ্যাপন তো আছেই। আছে শিশুর মতো মিষ্টি হাসি। সবই করা যায় যদি আসল জায়গাটা ঠিক থাকে। ব্যাটিঙেও শিখর ধাওয়ান শিখরেই ধাইছেন। গতকাল পেয়ে গেলেন পঞ্চম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। আর সেই সেঞ্চুরির সৌজন্যে অলিখিত ফাইনাল হওয়া ম্যাচটি ৫ উইকেটে জেতার পাশাপাশি সিরিজও নিশ্চিত করলো ভারত। গতকাল কানপুরে জয়ের জন্য ভারতের সামনে ২৬৪ রানের লক্ষ্য বেঁধে দিয়েছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৬১ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলা ভারত ধাওয়ানের সেঞ্চুরির পাশাপাশি যুবরাজ সিঙের ৫৫, সুরেশ রায়নার ৩৪ এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির অপরাজিত ২৩ রানের ইনিংসে ২৩ বল বাকি থাকতেই জিতে যায়। ১০ ইনিংস পরে ফিফটি পেলেন চাপের মুখে থাকা যুবরাজ। আগের ১০ ইনিংসে তিনটি শূন্যও ছিলো বোঝাই যাচ্ছে কতোটা চাপে ছিলেন যুবি। গতকাল নেমেও ছিলেন চাপের মুখে। ধাওয়ানের সাথে ১২৯ রানের জুটি গড়ে সেই চাপটাই তিনি ফিরিয়ে দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দিকে।
গত ম্যাচে দুর্দান্ত জয় পাওয়া ক্যারিবীয়রা আফসোস করতে পারে স্কোরটা আরও বড় হলো না কেন। ১ উইকেটে ১৩৭ রান তুলে ফেলার পর মনে হচ্ছিলো ভারতকে শক্ত চ্যালেঞ্জই ছুড়ে দেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু দ্বিতীয় পাওয়ার প্লেতে রানের ঝড় তোলার বদলে তারা পড়ে গিয়েছিলো উইকেট বৃষ্টির মধ্যে। ৫৯ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে হুট করে তাদের স্কোর হয়ে যায় ৫ উইকেটে ১৯৬। গত ম্যাচের নায়ক ড্যারেন স্যামি এবং তার মিতা ড্যারেন ব্রাভো মিলে শেষ ৫ ওভারে ৫৬ রান তুলে তবুও লড়াকু সংগ্রহ এনে দিয়েছিলেন। কিন্তু দিনটা যে ছিলো ধাওয়ানের। ডোয়াইন ব্রাভারে হাতে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে আউট হওয়া ধাওয়ান ৯৫ বলে ১১৯ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেছেন। দুর্দান্তই। কারণ তাতে আছে ২০টি চার। ৮০ রানই ধাওয়ান নিয়েছেন উইকেট-সঙ্গীকে দৌড়ানোর ঝামেলায় না ফেলে!

Leave a comment

Your email address will not be published.