ধর্ষণের দায়ে কিউবার পাঁচ খেলোয়াড়ের কারাদণ্ড

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ফিনল্যাণ্ডের এক নারীকে ধর্ষণের দায়ে দেশটির একটি আদালত কিউবার জাতীয় ভলিবল দলের ক্যাপ্টেনসহ পাঁচ খেলোয়াড়কে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে। এর মধ্যে ক্যাপ্টেন রোনাল্ডো সেপেদাসহ (২৭) অপর তিন খেলোয়াড় অ্যালফোনসো (২১), রিকার্ডো ক্যালভো (১৯) ও অসমেনি ওরিয়ারতেকে (২১) পাঁচ বছর এবং লুইস সেইরা (২১) নামে এক খেলোয়াড়কে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

একই সঙ্গে ধর্ষিতা ওই নারীকে ২৭ হাজার মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতেও বলা হয়েছে। ধর্ষিতা নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২ জুলাই ফিনল্যাণ্ডের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর টেমপেয়ার থেকে ওই পাঁচ খেলোয়াড়সহ আটজনকে আটক করে পুলিশ। ফিনল্যাণ্ডের সঙ্গে বাছাই পর্বের একটি ম্যাচ খেলতে গিয়ে কিউবার জাতীয় ভলিবল দলটি টেমপেয়ার শহরের ওই হোটেলটিতে অবস্থান করছিলো। দু জনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পরই ছেড়ে দেয়া হয়। আরেক খেলোয়াড়কে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর গত আগষ্ট মাসে ছেড়ে দেয়া হয়। তবে দণ্ডপ্রাপ্ত খেলোয়াড়রা আদালতে তাদের ওপর আরোপিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ওই নারী স্বেচ্ছায় তাদের সঙ্গে রাত কাটিয়ে পুলিশের কাছে মিথ্যা অভিযোগ করছে।

এ ঘটনায় কিউবা দলের দুই কোচকেও বরখাস্ত করা হয়েছে। ধর্ষণের অভিযোগে জাতীয় দলের সেরা খেলোয়াড়রা ফিনল্যাণ্ডে আটক থাকায় রিও অলিম্পিকে বিকল্প দল পাঠায় কিউবা। কিন্তু সেখানে ৫ ম্যাচের সবকটিতেই হারে কিউবা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *