দুই মেসি নিয়ে কেন খেলবে বার্সা : প্রশ্ন সেভিয়া কোচের

মাথাভাঙ্গা মনিটর: লিওনেল মেসি একজন, তাকে সামলাতে মাথার ঘাম ছুটে যায়। সেখানে একই দলে যদি দুজন মেসি থাকে, তাহলে প্রতিপক্ষ কোচদের কেমন ঘাম দিয়ে জ্বর ছুটবে কল্পনা করতে পারছেন? সেভিয়া কোচ উনাই এমেরি মোটেও এ পরিস্থিতির সামনে পড়তে চান না। বলাবাহুল্য, দুই মেসি ব্যাপারটা কল্পিত, কিংবা বলা ভালো তাত্ত্বিক। মেসির তো আর ক্লোন করা হয়নি। তবে এমেরি যে ব্যাখ্যা দিলেন, সেটিও অগ্রাহ্য করা যায় না। বার্সেলোনার মাঠ ন্যু ক্যাম্প তো ক্লাবটির জন্য আরেকটি মেসির সমান শক্তিরই। সেই মাঠে গিয়ে খেলা মানেই এমেরির চোখে একসাথে দু মেসি আছে এমন একটি দলের বিপক্ষে খেলা। ঝামেলা বেধেছে আগামী মে মাসে স্প্যানিশ কাপের ফাইনালের ভেন্যু নিয়ে। বার্সেলোনা তো পরশু দিনই উঠে গেছে, সেভিয়াও কাল সেল্টা ভিগোর সাথে ২-২ গোলে ড্র করে (গোলসমষ্টি ৬-২) উঠে গেছে কাপের ফাইনালে। কিন্তু ফাইনালটা হবে কোথায়? আর যেখানেই হোক, বার্সার মাঠে গিয়ে খেলতে রাজি নন এমেরি। দরকার হলে চীনে গিয়ে খেলবেন, তবু ন্যু ক্যাম্পে নয়। ভেন্যু নির্ধারণের ব্যাপারটা স্প্যানিশ ফুটবলে একটু আলাদা। অন্য সব দেশে যেমন আগেই নির্ধারণ করা থাকে, স্পেনে তা নয়। এখানে ফাইনালের দু প্রতিপক্ষ মিলে ঠিক করে কোন ভেন্যুতে খেলতে চায় তারা, অবশ্যই সেই মাঠের মালিক ক্লাবটির অনুমতি সাপেক্ষে। আর এটিই যত বিপত্তির গোড়া। গতবার ফাইনালে উঠে বার্সা প্রথম পছন্দ হিসেবে রেখেছিলো রিয়াল মাদ্রিদের মাঠ বার্নাব্যুকে, পরে রিয়াল রাজি না হওয়ায় ন্যু ক্যাম্পেই হয়েছিল ফাইনাল।
এবারও বার্সার প্রথম পছন্দ বার্নাব্যু, এবারও রিয়ালের রাজি হওয়ার কোনো কারণই নেই। নিজের মাঠে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের সম্ভাব্য শিরোপা উৎসব কে দেখতে চায়! সবচেয়ে বড় কথা, রিয়ালের পক্ষ থেকে অভিযোগ, অতীতে এমন ফাইনালে বার্সার সমর্থকেরা নাকি রিয়ালের গ্যালারির সর্বনাশ করে ছেড়েছিলো। আর তাই গুঞ্জন উঠছে, এবারও ফাইনাল শেষ পর্যন্ত হতে পারে ন্যু ক্যাম্পেই। অবশ্য বিকল্প হিসেবে ভ্যালেন্সিয়ার মেস্তায়া ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ভিসেন্তে ক্যালদেরনও আছে। কিন্তু গতবারের পুনরাবৃত্তি হলে এবারও ফাইনালটা নিজেদের মাঠেই খেলবে বার্সা।
এ বিষয় নিয়েই গতকাল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন করা হয়েছিলো এমেরিকে। তাতে সেভিয়া কোচের উত্তর, ‘আশা করি গতবারের মতো এবারও ক্যাম্প ন্যুতে ফাইনালটা হবে না। দরকার হলে চীনে গিয়ে খেলব। ব্যাপারটি নিয়ে আশা করি কোনো অবিচার হবে না। কারণ (ন্যু ক্যাম্পে খেলা) অনেকটা ওদেরকে দুজন মেসি দিয়ে দেয়ার মতো।’
বার্সার মাঠে খেলতে না চাওয়াটা যুক্তিযুক্তই বটে, তাহলে কোথায় খেলতে চান এমেরি? সান্তিয়াগো বার্নাব্যু? সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমেরির উত্তর, যেকোনো মাঠ, যেখানে সেভিয়া সমর্থকেরা স্বচ্ছন্দ বোধ করবে। নিশ্চিতভাবেই সেটি ন্যু ক্যাম্পে নয়। কোচের মতো আন্দালুসিয়ান ক্লাবটির সভাপতি হোসে কাস্ত্রোও ফাইনালটাকে বার্সার ‘হোম ম্যাচ’ হতে দিতে চান না। তার কণ্ঠে প্রতিজ্ঞা, ‘সেভিয়া অবশ্যই ন্যু ক্যাম্পে খেলবে না। ক্যালদেরন একটা বিকল্প হতে পারে, বার্নাব্যুও ঠিক আছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *