টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ওপর সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা!

স্টাফ রিপোর্টার: ভারতে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির সময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল বড় ধরণের নিরাপত্তা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে কয়েকটি রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশের জন্য নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়েছে বলা জানা গেছে। বিশ্বকাপে সুপার টেন খেলতে হলে বাংলাদেশকে পাড়ি দিতে হবে কোয়ালাফাইং রাউন্ড। কোয়ালিফাইং রাউন্ডের খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালায়। তবে কোয়ালিফাইং রাউন্ডের চৌকাঠ অতিক্রম করতে পারলে সুপার টেনের ম্যাচগুলো খেলতে কোলকাতায় খেলবে বাংলাদেশ। এখানেই বাংলাদেশসহ পাকিস্তান ও আফগানিস্তান দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

নিরাপত্তার বিষয়টি বেশ গুরুত্ব সহকারে দেখছে কলকাতা পুলিশ। নিরাপত্তা নিয়ে কোনো ত্রুটি রাখতে চাচ্ছে না তারা। কলকাতার সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পাকিস্তানের সাথে আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত কলকাতার পুলিশ। আর পাকিস্তান ক্রিকেট দলের নিরাপত্তাব্যবস্থা আরও নিখুঁত করা হচ্ছে। নিয়মিত পুলিশ বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনীও থাকবে নিরাপত্তার দায়িত্বে। বিডি ক্রিকেট টিম এর একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, কিংবদন্তি তুল্য ইডেন গার্ডেনের নিরাপত্তা দিয়ে ট্যাংক নিয়োজিত করা হবে। নিরাপত্তা শঙ্কায় থাকা এ তিন দল অবস্থান করবে একই হোটেলে। বাংলাদেশ বাছাই পর্ব পেরুতে পারলে ১৬ মার্চ ইডেন গার্ডেনে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই ওয়ার্ল্ড টি টোয়েন্টি শুরু করবে। এর আগে নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ড। ভারতে ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টিতে অংশ নেয়ার বিষয়ে পাকিস্তানকে এখনো দেশটির বোর্ড ছাড়পত্র দেয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *