টিকিট বিক্রি নিয়ে অব্যবস্থাপনা, ক্ষুব্ধ দর্শক

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজের প্রথম টেস্টের টিকিট কিনতে এসে আহত হয়েছেন ৭ জন। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম এলাকায় টিকিট বুথের সামনের ছোট সাঁকো ভেঙে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় দর্শকরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠলে ‘মিথ্যা আশ্বাস’ দিয়ে দর্শকদের শান্ত করা হয়। এছাড়া আয়োজক কমিটির ব্যবস্থাপনা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দর্শকরা। ভোর ৫টা থেকে টিকিটের জন্য লাইনে দাঁড়ান দর্শকরা। কিন্তু টিকিট দেয়া শুরু হয় সকাল দশটা থেকে। এরপর প্রচণ্ড ভিড়ে সাড়ে দশটার দিকে স্টেডিয়ামের পাশে টিকেট বুথের সামনে সাঁকো ভেঙে সাতজন আহত হন। এ ঘটনায় উত্তেজিত দর্শকরা স্টেডিয়ামের দিকে তেড়ে আসলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়। আয়োজক কমিটির কর্মকর্তারা দর্শকদের স্টেডিয়ামে টিকিট ছাড়া প্রবেশের আশ্বাস দিলে ক্ষুব্ধ দর্শকরা শান্ত হয়। এ সময় আধঘণ্টার জন্য স্টেডিয়ামের প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়। পরে অবশ্য কোনো দর্শককে টিকিট ছাড়া প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

খুলশী থানার উপপরিদর্শক সোলায়মান বলেন, একসাথে বেশি মানুষ হওয়ায় একটু ঝামেলা হয়েছে। কিছু সময়ের জন্য টিকিট বিক্রি বন্ধ থাকলেও পরে আবার শুরু হয়। হালিশহর থেকে খেলা দেখতে আসা সাইফুল বলেন, টিকিট নিয়ে আয়োজক কমিটির চরম অব্যবস্থাপনা দেখা গেছে। মাত্র একটি কাউন্টারে টিকিট বিক্রি করায় এ সমস্যা হয়েছে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আসা আরিফুল ইসলাম জানান, এ স্টেডিয়ামে অনেকবার খেলা দেখেছি। কিন্তু এবারের মতো অব্যবস্থাপনা আর দেখিনি। পতেঙ্গা থেকে আসা রবিউল বলেন, টিকিটের জন্য ভোর ৫টায় এসেছি। কিন্তু ১০টা পর্যন্ত কোনো টিকিট দেয়া হয়নি।

এ প্রসঙ্গে ভেন্যু চেয়ারম্যান ও বিসিবি পরিচালক আ জ ম নাছির উদ্দিনের সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। প্রসঙ্গত, খেলা চলাকালীন স্থানীয় আয়োজক কমিটি নুরজাহান গ্রুপের সিকিউরিটি বক্স টিকেট বিক্রির জন্য বরাদ্দ নেয়া হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *