জিদানের সেই লাল কার্ড নিয়ে বললেন রেফারি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: শতবর্ষ পরও কেউ যখন ২০০৬ বিশ্বকাপের দিকে তাকাবে, সব ছাপিয়ে একটা দৃশ্যই বড় হয়ে ভাসবে তার চোখের সামনে। ইতিহাসের পৃষ্ঠা থেকে মূর্ত হয়ে উঠবে ছবিটা মার্কো মাতেরাজ্জিকে ঢুস মেরে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন জিনেদিন জিদান! অনাকাঙ্ক্ষিত হলেও ফুটবল-ইতিহাসেই ঢুকে গেছে ছবিটা। আর সেই আলোচিত ছবিটির অন্যতম চরিত্র রেফারি হোরাসিও এলিজোন্দো। মাতেরাজ্জিকে ঢুস মারার দৃশ্যটি অবশ্য তিনি প্রথমে খেয়াল করেননি। নজর ছিলো বলের দিকে। পরে মাটিতে শুয়ে কাতরাতে থাকা মাতেরাজ্জিকে দেখে সহকারী রেফারির কাছে ঘটনা জানতে চান। ঘটনা শোনার পর এক মুহূর্ত দ্বিধা না করে লাল কার্ড দেখিয়ে দেন জিদানকে! ফুটবল মাঠ থেকে হেঁট মাথায় শেষবারের মতো বেরিয়ে যান সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলারটি।

এলিজোন্দো এতোদিন পর জানাচ্ছেন, বিশ্বকাপ ফাইনালের মতো ম্যাচে জিদানের মতো খেলোয়াড়কে লাল কার্ড দেখানো তার জন্য ছিলো অনেক কঠিন এক সিদ্ধান্ত। এ মুহূর্তকে ক্যারিয়ারের অন্যতম স্মরণীয় মুহূর্তও বলছেন তিনি। তবে তার মানে কিন্তু এই নয়, এ নিয়ে কোনো আক্ষেপ আছে এলিজোন্দোর মনে। সেই বিশ্বকাপের উদ্বোধনী-সমাপনী দুটো ম্যাচই পরিচালনার সম্মান পাওয়া আর্জেন্টাইন এ রেফারি বলছেন, ঘটনাটি আমার মনে আছে। কারণ, এটা ছিলো বিশ্বকাপ ফাইনালের একটি ঘটনা।

এ ঘটনা তাকেও ঠাঁই করে দিয়েছে ইতিহাসে। ব্যাপারটি উপভোগ করেন এলিজোন্দো, এরপর আরও দুটো বিশ্বকাপ প্রায় পার করে ফেলছি আমরা। কিন্তু এখনো সবাই আমাকে সেই ঘটনাটি নিয়েই জিজ্ঞেস করে। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা ঘটনা ছিলো, তবে এমন নয়, এটিই আমার নেয়া ক্যারিয়ারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *