ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন আজমল!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ডেভ হোয়াটমোর পাকিস্তানের কোচ হওয়ায় বিশেষ কোনো সুবিধা হয়নি। পূর্বসুরি ওয়াকার ইউনিস ও মোহসিন খান তার চেয়ে ভালো দায়িত্ব পালন করেছেন। সাঈদ আজমলের এমন সব মন্তব্যে বর্তমান কোচ মানসিকভাবে পাওয়া আঘাত লুকিয়ে রাখতে পারলেন না। কোচ ও খেলোয়াড়ের মধ্যে মান অভিমান থাকলে সেটা দলের জন্যই বিপজ্জনক হবে- এমনটা বুঝতে পেরেই হোয়াটমোরের কাছে আজমলকে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করলেন পাকিস্তান ক্রিকেট কর্মকর্তারা।

গত বুধবার পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলকে এক সাক্ষাতকারে দলে বিদেশি কোচ থাকা নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন পাকিস্তানের স্পিনার তারকা। শিষ্যের এমন মন্তব্যে টুইটারে প্রতিক্রিয়া জানান হোয়াটমোর, তার মন্তব্যে আমি খুবই হতাশ ও মানসিকভাবে আঘাত পেয়েছি। চেনা কারো কাছ থেকে এমন কথা শুনলে খুব কষ্ট লাগে। এমন ঘটনায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়। হোয়াটমোরের সাথে দেখা করে আজমলকে ক্ষমা চাইতে বলে তারা। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপক্ষের কথাবার্তা শুনে মনে হচ্ছে মিটমাট হয়ে গেছে। পাকিস্তানের এ অস্ট্রেলীয় কোচ বলেন, আজমল আমার কাছে ব্যক্তিগতভাবে এসে ক্ষমা চেয়েছে। সে কী অর্থে কথাগুলো বলেছে তা আমাকে জানিয়েছে। আমিও সেটা মেনে নিয়েছি। হোয়াটমোরের সামনে দাঁড়াতে কোনো দ্বিধাবোধ ছিলো না আজমলের মধ্যে, ‘আমি তখনই ডেভের কাছে গিয়ে ক্ষমা চেয়েছি। আমি কোনো প্রেক্ষিতে মন্তব্যগুলো করেছি সেটা বুঝিয়েছি। ডেভ পাকিস্তান দলের সাথে নিরলসভাবে কাজ করেছে। তার কাজের স্বীকৃতি না দেয়া চরম হতাশার। তার সাথে আমার খুব ভালো সম্পর্ক। আশাকরি আসন্ন সিরিজগুলোতেও সেটা বজায় থাকবে।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *