ওয়ার্নারের দাপটে অস্ট্রেলিয়ার জয়

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে সহজ জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ডেভিড ওয়ার্নারের শতকে ইংল্যান্ডকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে এবারের বিশ্বকাপের স্বাগতিকরা। গতকাল শুক্রবার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে ব্যাট করতে নামা ইংল্যান্ড ৪৭.৫ ওভারে ২৩৪ রানে অলআউট হয়। জবাবে শেষ দিকে দ্রুত ৪টি উইকেট হারালেও জয় নিয়ে তেমন একটা ভাবতে হয়নি অস্ট্রেলিয়াকে। ১০ ওভার এক বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে লক্ষ্যে পৌঁছানোর পাশপাশি একটি বোনাস পয়েন্টও তুলে নিয়েছে তারা।

প্রথম ওভারেই দুই উইকেট হারিয়ে চরম বিপদে পড়ে ইংল্যান্ড। দ্রুত আরও তিন ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলে এক সময় তাদের স্কোর দাঁড়ায় ৫/৬৯। এরপর পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ওয়েন মর্গ্যান একাই দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তোলেন। কিন্তু অন্য কেউ তাকে সঙ্গ না দিতে পারায় আড়াইশ পর্যন্ত পৌঁছায়নি তাদের ইনিংস। নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে অধিনায়ক মর্গ্যান তার সপ্তম ওয়ানডে শতক তুলে নেন। ১৩৬ বলে ১১টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১২১ রান করেন তিনি। অধিনায়ক হিসেবে মগ্যার্নের এটা দ্বিতীয় ওয়ানডে শতক। অ্যালেস্টার কুকের বদলে নেতৃত্ব পাওয়ার পর এটাই ছিলো তার প্রথম ম্যাচ।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন জস বাটলার। ইংলিশদের অল্প রানে বেধে ফেলতে মিচেল স্ট্যার্ক ৪টি এবং জেমস ফকনার ৩টি উইকেট নেন। জবাবে অ্যারন ফিঞ্চ ১৫ রান করে আউট হয়ে গেলেও আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নারের দৃঢ়তায় ভালো শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। আর কেউ বড় ইনিংস না খেলতে পারলেও তৃতীয় উইকেটে স্টিভেন স্মিথের (৩৭) সাথে ৮৭ রানের জুটি গড়ে জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেন ওয়ার্নার। ক্রিস ওকসের বলে ইয়ান বেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে ১২৭ রান করেন ওয়ার্নার। এটা তার তৃতীয় ওয়ানডে শতক। তার ১১৫ বলের ইনিংসটি ১৮টি চার সমৃদ্ধ। ইংল্যান্ডের পক্ষে ওকস ৪০ রানে ৪ উইকেট নেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *