এ কী করলেন ক্যাসিয়াস!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ইকার ক্যসিয়াস- নামটা মুখে নিলেই ভেসে ওঠে গোলবারেরনিচে একটি ইস্পাত-দৃঢ় মানসিকতার প্রতিচ্ছবি। স্পেন ও রিয়াল মাদ্রিদেরগোলবারের নিচে অতন্দ্র প্রহরী তিনি। ভিসেন্ত দেল বস্কের এক নম্বর পছন্দ।কিন্তু ব্রাজিল বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে কিকরলেন তিনি?গত বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে চিলির কাছে গোলখেয়েছিলেন তিনি। ম্যাচের ৪৭ মিনিটে ক্যাসিয়াসকে পরাস্ত করে রদ্রিগো মিলনার।এরপর গোলবারের নিচে কেডে গেছে ৪৩৩ মিনিট। একবারও কেউ ফাঁকি দিতে পারেনি ৩৩বছর বয়সী ক্যাসিয়াসকে। গোলবার বলমুক্ত রাখার একটি বিরল রেকর্ডের সামনেওছিলেন তিনি। এর আগে ১৯৯০ সালের বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৫১৭ মিনিটে নিজেদের জালগোলমুক্ত রেখেছিলেন ইতালির গোলরক্ষক ওয়াল্টার জেঙ্গা। আর মাত্র ৮৪ মিনিটনিজেদের জাল গোলমুক্ত রাখলে জেঙ্গাকে টপকে যেতেন ক্যাসিয়াস। কিন্তু মাত্র৪০ মিনিটের জন্য তিনি পারলেন না সে রকের্ড গড়তে। এদিন ম্যাচর ৪৪ মিনিটেক্যাসিয়াসকে হতাশ করেন ডাচ স্ট্রাইকার রবিন ফন পার্সি। আর এ ম্যাচেক্যাসিয়াসের হাতাশাকর পারফর্মেন্স তো আছেই। এদিন ম্যাচের ৭২ মিনিটে তার পাথেকে বল কেড়ে নিয়ে গোল দিয়েছেন পার্সি। সার্জিও একটি বল সেভ করেক্যাসিয়াসের কাছে দেন। ক্যাসিয়াস সেটা নিয়ে হালকাভাবে ক্লিয়ার করতে যান।কিন্তু এ ফাঁকে দুর্দান্ত গতির পার্সি এসে ক্যাসিয়াসের পা থেকে বল কেড়েনিয়ে আরেকটি গেল দেন। ক্যাসিয়াসের এমন বোকামি মোটেও ‘ক্যাসিয়াসীয়’নয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *