আর্থিক পুরস্কারে উচ্ছ্বসিত চ্যাম্পিয়ন কন্যারা

 

স্টাফ রিপোর্টার: ফুটবল থেকে ইদানিং সুখবর তেমন একটা আসেই না। এমন সময়ে বাংলাদেশকে অসামান্য কিছু আনন্দের সময় উপহার দিয়েছে মেয়ে ফুটবলাররা। অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবলাররা মাত্র ক’দিন আগেই সারা দেশকে মাতিয়েছে আনন্দ উৎসবে। এতো বড় কৃতিত্বের তো প্রতিদান হয় না। তারপরও বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ দলের খেলোয়াড়দের ও কোচদের পুরস্কৃত-সম্মানিত করলো বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন।

বাফুফের দেয়া এ সংবর্ধনা ও আর্থিক পুরস্কারের জবাবে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্বে ওঠা কিশোরীরা জানিয়েছেন তারা নিজেদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করবেন। ঢাকায় অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার বাছাই পর্বে ‘সি’ গ্রুপে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় কৃষ্ণা রাণী সরকারের নেতৃত্বাধীন দলটি। এরই সুবাদে আগামী বছরের সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য চূড়ান্ত পর্বে প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় জাপান, চীন, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, উত্তর কোরিয়া, থাইল্যান্ড ও লাওসের মতো শক্তিশালী দলের সঙ্গে খেলবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

গত সোমবার ঢাকার একটি পাঁচতারা হোটেলে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে স্পন্সর প্রতিষ্ঠান জেমকন গ্রুপ, সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টস এবং ক্যাল্ডওয়েলের সৌজন্যে এক লাখ ২৫ হাজার করে দেয়া হয় প্রত্যেক ফুটবলারকে। অনূর্ধ্ব ১৬ দলের ২৩ খেলোয়াড়, হেড কোচ গোলাম রব্বানি ছোটন ও দুই সহকারী কোচের সবাইকে আর্থিক পুরস্কার দেয়া হয়। ক্ষুদে ফুটবলারদের উৎসাহিত করতে জেমকন গ্রুপ ও সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টস প্রত্যেক খেলোয়াড়কে ৫০ হাজার করে মোট এক লাখ টাকার চেক দেয়।

অপরদিকে ক্যাল্ডওয়েল প্রত্যেক খেলোয়াড়কে মাথাপিছু ২৫ হাজার টাকার চেক প্রদান করে। এছাড়া এসএস সলিউশনস দলের প্রতিটি খেলোয়াড়ের জন্য আগামী এক বছর মাসিক ভাতা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। আর্থিক পুরস্কার পেয়ে উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবল দলের অধিনায়ক কৃষ্ণা চূড়ান্ত পর্বেও ভালো খেলার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, আমাদের আর্থিকভাবে সহযোগিতা করায় খুব ভালো লাগছে। এজন্য বাফুফেকে ধন্যবাদ জানাই। এ আর্থিক সহযোগিতার ফলে আমাদের মধ্যে যাদের পারিবারিক সমস্যা আছে তাদের জন্য ভালো হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *