আবারো শেষ মূহুর্তের গোলে কোয়ার্টারে ইতালি

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বরাবরের মতই ডিফেন্সিভ ফুটবল খেলে আবারো শেষ হাসি হাসল ইতালি। গ্রুপ পর্বের খেলায় সুইডেনের বিপক্ষে ম্যাচে অনুজ্জ্বল থেকেও শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলের জয় ছিনিয়ে নিয়েছে চার বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এদিকে ইতালির কাছে হেরে কোয়ার্টারে ওঠার স্বপ্ন কিছুটা মলিন হয়ে গেছে জালাতন ইব্রাহোমিভেচের সুইডেনের। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে তারা মুখোমুখি হবে ফিফা ৱ্যাঙ্কিঙে ইউরোপের সেরা শক্তিশালী দল বেলজিয়ামের।

প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী বেলজিয়ামকে হারানো ইতালির তুলুজে শুক্রবার বিকেলে ম্যাচের শুরুটা হয় সাধারণ মানের। প্রথমার্ধে বল দখলে তাদের চেয়ে বেশ এগিয়ে ছিলো সুইডেন। মধ্য মাঠে বলের লড়াইয়ে গোছানো ফুটবল খেলে এগিয়ে ছিলো সুইডেন। এমনকি প্রথমার্ধের শেষ ৫ মিনিটে ইতালির ডি বক্সে ৩ বার আক্রমণ করে সুইডিশরা। কিন্তু আক্রমণটা ছিলো ওই ডি বক্স পর্যন্তই। গোলে একবারও কিক নিতে পারেনি ইব্রারা।

অনেকটা মাঝমাঠ কেন্দ্রিক প্রথমার্ধের ফুটবলের পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে লড়াই জমে ওঠার ইঙ্গিত মেলে। কিন্তু এবারও লক্ষ্যে শট নিতে ব্যর্থ হয় উভয় দল। ৮২তম মিনিটে ম্যাচের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য সুযোগটি পায় ইতালি। এমানুয়েলে জাক্কেরিনির দারুণ ক্রসে লাৎসিওর মিডফিল্ডার মার্কো পারোলোর হেড গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও ক্রসবারে লাগে। এর ঠিক ছয় মিনিট পরেই আসে এদেরের সেই অসাধারণ গোল। বাঁদিক থেকে বল পায়ে প্রতিপক্ষের তিন জনের মধ্যদিয়ে অনেকটা আড়াআড়ি দৌড়ে ডি বক্সের ঠিক বাইরে থেকে দুর্দান্ত শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইন্টার মিলানের এ ফরোয়ার্ড। দু মিনিট পরেই ব্যবধান বাড়তে পারতো ইতালি; তবে পিএসজির মিডফিল্ডার থিয়াগো মোত্তার শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। দু জয়ে ৬ পয়েন্ট পাওয়া ইতালির গ্রুপ অব ডেথ হিসেবে বিবেচিত ‘ই’ গ্রুপের কমপক্ষে রানার্সআপ হওয়াটা নিশ্চিত হয়ে গেল। ইউরোর ছয়টি গ্রুপের সেরা দুইটি করে দল এবং তৃতীয় স্থানের সেরা চারটি দল পরের রাউন্ডে উঠবে

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *