অ্যাশেজ জিতলো অস্ট্রেলিয়া

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাঁচ বছর পর অ্যাশেজের গৌরব উদ্ধার করলো অস্ট্রেলিয়া। সর্বশেষ তারা ২০০৬-০৭ মওসুমে ইংল্যান্ডকে ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইট ওয়াশ করে অ্যাশেজের সিরিজ জিতেছিলো। এরপর টানা তিনটি সিরিজ তারা প্রতিপক্ষের কাছে নাস্তানাবুদ হয়েছে। সর্বশেষ চার মাস আগে ইংল্যান্ডের মাটিতেও তারা সিরিজ হেরেছে ৩-০ ব্যবধানে। কিন্তু নিজেদের মাটিতে প্রথমবারের মতো ফিরতি অ্যাশেজে খেলতে নেমে দীর্ঘদিন ছুঁতে না পারা ‘ভাস্মাধার’টি ফিরিয়ে আনলো তারা। পাঁচ ম্যাচের সিরিজের প্রথম তিনটিতে জিতে দু ম্যাচ হাতে রেখেই ইংল্যান্ডকে সিরিজ হারালো অস্ট্রেলিয়া।

পার্থে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে দ্বিতীয় ইনিংসে জয়ের জন্য ৫০৫ রানরে টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ২৫১ রান করে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করে ইংল্যান্ড। জয়ের জন্য আজকের শেষ ও পঞ্চম দিনে সফরকারীদের করতে হত ২৫৩ রান। আর ড্র করতে হলে পাঁচ উইকেটে ক্রিজে কাটাতে হত সারাটি দিন। কিন্তু আজ ইংলিশরা ১০২ রান যোগ করতেই বাকি উইকেটগুলো হারিয়ে ফেলে। তারা অলআউট হয়ে যায় ৩৫৩ রানে। এতে ইংল্যান্ডকে ১৫০ রানের হার মেনে নিতে হয়। আর অসিরা সিরিজ জিতে নেয় ৩-০ ব্যবধানে। পঞ্চম দিনের খেলায় আগের দিনের অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যান বেন স্টোকস (৭২*) ও ম্যাট প্রিয়র (৭*) ৪৫ রান যোগ করেন। প্রিয়র ২৬ রানে ফিরে গেলেও ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নামা স্টোকস মাটি কামড়ে পড়ে থাকেন উইকেটে। তিনি শেষ পর্যন্ত ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করে আউট হন ১২০ রান করে। কিন্তু তার সেঞ্চুরিতে রক্ষা পয়নি ইংল্যান্ড। শেষ উইকেট হিসেব ক্রিজে আসেন ইংলিশ বোলার জেমস অ্যান্ডারসন। মিচেল জনসনের করা একটি বল পড়িমরি করে খেলতে গিয়ে উঠিয়ে দেন ওপরে। আর সেটা জর্জ বেইলি দারুণভাবে তালুবন্দী করে জয়ের উল্লাসে মাতেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *