হয়রানি-আতঙ্কে আছি : ন্যান্সি

0
35

স্টাফ রিপোর্টার: জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি হয়রানি-আতঙ্কে ভুগছেন। সম্প্রতি ফেসবুকে দেয়া একটি রাজনৈতিক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে নানা ধরনের হুমকি এবং সর্বশেষ গত মঙ্গলবার গভীররাতে তার নেত্রকোনার বাড়িতে পুলিশের অভিযান চালানো হয়। এরপর থেকে ন্যান্সি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানালেন ন্যান্সি।

সংবাদ সম্মেলনে ন্যান্সি বলেন, ‘আমি সব শ্রেণিপেশার মানুষের শিল্পী। সাত বছর ধরেই পেশাদার শিল্পী হিসেবে গান করছি। এতো বছর পর্যন্ত সবাই আমাকে শিল্পী হিসেবে চিনেছে। ২১ অক্টোবর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে নিজের রাজনৈতিক অবস্থান পরিষ্কার করার পর থেকে আমার কাছে নানা মাধ্যম থেকে হুমকি আসছে। আর গত মঙ্গলবার পুলিশের কাছে আমি হয়ে গেলাম ছাত্রদল ও ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীদের আশ্রয়দাতা! যার জন্য গভীররাতে পুলিশের একটি দল আমার বাড়িতে অভিযান চালায়। বিষয়টিতে আমার অবাক হওয়া ছাড়া আর কিছুই বলার নাই।’ ন্যান্সি আরও বলেন, ‘আমি সঙ্গীতাঙ্গনের মানুষ। গানই করতে চাই। কিন্তু গণতান্ত্রিক দেশের একজন নাগরিক হিসেবে রাজনৈতিক মতাদর্শ প্রকাশের স্বাধীনতা আমার অবশ্যই আছে। তাই বলে আমাকে পুলিশের মাধ্যমে হয়রানি হতে হবে, ভাবতে পারিনি।’

ন্যান্সি এ-ও বলেন, পুলিশি অভিযানের পর অনেকে আমাকে থানায় জিডি করতে বলেছেন। কিন্তু যেসব পুলিশ আমার বাড়িতে কোনো ধরনের কারণ ছাড়াই এতো রাতে গিয়েছিলেন, তারা কি নিজেদের বিরুদ্ধে জিডি নিবেন? সত্যিই আমি আতঙ্কিত। চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আর তাই তো বাধ্য হয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে নিজের অসহায়ত্বের বিষয়গুলো তুলে ধরছি। নিজের সক্রিয় রাজনীতির ব্যাপারে ন্যান্সি বলেন, ‘আমি কখনোই সক্রিয় রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম না। তবে জাতীয়াতাবাদী রাজনীতির আদর্শের প্রতি আমার পূর্ণ সমর্থন রয়েছে।’ সংবাদ সম্মেলনে ন্যান্সি ছাড়াও অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা চাষী নজরুল ইসলাম, জাসাসের সভাপতি আবদুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক মনির খান, জাসাসের নেতা রিজিয়া পারভীনসহ আরও অনেকে।

প্রসঙ্গত, ২১ অক্টোবর রাতে ওই ফেসবুক স্ট্যাটাসে নিজের রাজনৈতিক অবস্থান স্পষ্ট করেন ন্যান্সি। বিএনপির প্রতি সমর্থন জানানোর পাশাপাশি বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার অনেক প্রশংসা করেন তিনি। ন্যান্সি তার ফেসবুক বার্তায় লেখেন, ‘আর চুপ করে থাকতে পারলাম না। আজ বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বক্তব্য শুনলাম। আমি ও আমার পরিবার সব সময় বিএনপিকে সাপোর্ট করেছি। কিন্তু আজ বিএনপির পক্ষপাতিত্ব করে নয়, বাংলাদেশের একজন সাধারণ ও সচেতন নাগরিক হিসেবে আমি বেগম খালেদা জিয়ার সুস্পষ্ট, সুচিন্তিত, জনহিতকর বক্তব্যকে সাধুবাদ জানাই। সেইসাথে বেগম খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের প্রতি দীর্ঘদিন ধরে যারা অন্যায় করেছেন বা করছেন, তাদের প্রতি তিনি (বেগম জিয়া) যে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টি দেখিয়েছেন, সেটাও নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার।’ একই স্ট্যাটাসের ন্যান্সি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সমালোচনা করে লেখেন, ‘ক্ষমতার অপব্যবহারকারী শেখ হাসিনার জন্য নয়, দীর্ঘদিন ধরে শুধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারণে যারা আওয়ামী লীগকে সাপোর্ট করেছেন, তাদের সকল অন্যায় মুখ বুজে সহ্য করেছেন; এখনি সময় প্রতিবাদ করার। আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি, বাংলাদেশের মানুষ স্বৈরাচারী আওয়ামী লীগের মিথ্যাচারের কবল থেকে মুক্তি চায়। তাই এবার শত প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে বিএনপি জয়লাভ করবে, ইনশাআল্লাহ।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here