১০ বোতল ফেনসিডিলসহ হাতেনাতে পাচারকারী পাকড়াও

 

স্টাফ রিপোর্টার: দিনে কমপক্ষে তিন/চারটা খ্যাপ মারে মুকুল। গতকাল মঙ্গলবার প্রথম খ্যাপেই ধরা পড়েছে পুলিশের হাতে। দর্শনা থেকে চুয়াডাঙ্গা শহীদ হাসান চত্বরে পৌঁছুতেই পুলিশ আটক করে। তার দেহ তল্লাশি করে উদ্ধার করা হয় ১০ বোতল ফেনসিডিল।

পুলিশসূত্র বলেছে, চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুরের মজিবর রহমানের ছেলে মুকুল (৩২) দীর্ঘদিন ধরে ফেনসিডিল পাচার করে আসছিলো। প্রতিদিনই সে একাধিক ফেনসিডিলের চালান নিয়ে চুয়াডাঙ্গায় আসে। ইসলামপড়ার পাখি পরিবারসহ বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট তা পৌঁছে ফিরে যায়। মঙ্গলবার সকালে মুকুল তার মাজায় কৌশলে ১০ বোতল ফেনসিডিল বেঁধে চুয়াডাঙ্গা শহীদ হাসান চত্বরে পৌঁছায়। ফেনসিডিল পাচারের খবর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এসআই খালিদ। তিনিট সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে টহলে ছিলেন। দ্রুত শহীদ হাসান চত্বরে পৌঁছে তিনি হাতেনাতে মুকুলকে আটক করেন। উদ্ধার করেন ফেনসিডিল। সদর থানায় মামলা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *