হাসানহাটির কাচা রাস্তাটির পাকাকরণের জন্য এলাকাবাসীর আবেদন

 

বদরগঞ্জ ব্যুরো: পাঁচ কিলোমিটার রাস্তায় এক হাঁটু কাদাপানি বদ্ধ থাকায় এলাকাবাসীর একমাত্র চলাচলের রাস্তাটি ট্রাক্টর দিয়ে চাষ দিয়েছে গ্রামবাসী। স্থানীয়রা জানান, ভোটের সময় এলেই জনপ্রতিনিধিরা এলাকার সাধারণ জনগণের ভোট নেয়ার জন্য চলাচলের বিভিন্ন রাস্তাঘাট উন্নয়নের কথা বললেও দিয়ে ভোট শেষে আর তাদেরকে দেখা যায় না। এসব জনপ্রতিনিধিরা জনগণের ভোট নিয়ে প্রতিনিধিত্ব দায়িত্ব পাওয়ার তারা সরকারি অর্থ সম্পদ আত্মসাত ভোগ করে তারা উন্নয়ন হলেও হচ্ছে না তাদের হাত দিয়ে হাসানহাটির গ্রামের একমাত্র রাস্তাটির উন্নয়নমূলক কাজ। জনসাধারণ বলেছে ভোটের সময়ে এলে টুপি মাথা হাতে তসবি, এরা বড় ধরনের ধোঁকাবাজ বলে এলাকার সচেতনমহল উদ্বেগ প্রকাশ করেন?

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদরের ৩ নং কুতুবপুর ইউনিয়নের প্রায় কাচা রাস্তাগুলো ইটের কার্পেট ইটের হেয়ারিং ও পিচকরণ করা হলেও ১৯৭১ সালের পর থেকে প্রায় দেড়ডজন জনপ্রতিনিধি চেয়ারম্যান মেম্বার নির্বাচিত হয়ে এলেও কুতুবপুর ইউনিয়ন নয়মাইল বাজার থেকে কুতুবপুর বাজার পযর্ন্ত পাঁচ কিলোমিটার কাচা রাস্তা আজও পর্যন্ত একটা ইটের টুকরো পড়েনি। একটু বৃষ্টি হলে এ রাস্তার বিভিন্ন স্থানে হাঁটু পযর্ন্ত গর্তে পানি জমে কাদায় পরিণত হয়।  এলাকার জনসাধারণের চলাচলে করতে দুর্ভোগ পোয়াতে হয়। হাসানহাটি গ্রামের কামারপাড়ায় মধ্যে রাস্তায় জলবদ্ধতা হয়ে মাজা পর্যন্ত গর্তের সৃষ্টি হয়। এ গর্তকে কেন্দ্র করে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে হাসানহাটির গ্রামবাসী ট্রাক্টর ভাড়া করে রাস্তা চাষে দিয়ে এলাকার জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে উপরোক্ত মন্তব্য প্রকাশ করেন। রাস্তাটি দ্রুত পাকাকরণের জন্য চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সোলায়মান হক জোর্য়াদার ছেলুন মিয়ার হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এলাকাবাসী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *