সৌন্দর্য বাড়াতে শামুক

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: নদী আর খাল-বিলের শামুক আজ স্থান পাচ্ছে বিউটি পার্লারে। অনেকে বিশেষ করে নারীরা এ শামুক দেখে নাক সিটকাতেন, তারাই এই শামুককে নিজের মুখে স্বেচ্ছায় অবাধে বিচরণ করতে দেবেন। সৌন্দর্য চর্চার প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে শামুক। ত্বককে মসৃণ আর কোমল করতে এখন বাজারে স্নেইল ফ্যাসিয়াল। জাপান পেরিয়ে আজকে যুক্তরাজ্যের বাজারে প্রবেশ করেছে এই স্নেইল ফ্যাসিয়াল। ব্রিটিশদের  মুখমণ্ডলে একবার শামুককে বিচরণ করাতে হলে দিতে হয় ৫০ পাউন্ড। যুক্তরাজ্যের পূর্ব মিডল্যান্ডের সিম্পলি ডিভাইন নামের একটি স্যালুন চলতি সপ্তায় জাপানের এ ফ্যাসিয়ালের ব্যবহার শুরু করেছে। গত মাসে জাপানে ফ্যাসিয়াল হিসেবে প্রথম শামুকের ব্যবহার শুরু হয়। মুখের ত্বকের কোমলতা ও সজীবতা বাড়াতে অদ্ভূত এ পদ্ধতিতে তিনটি শামুককে মুখমণ্ডলে বিচরণ করতে দিতে হয়। খুবই যত্নের সাথে এ পদ্ধতির প্রয়োগ ঘটান স্পা বিশেষজ্ঞরা। দুটি শামুককে দু গালে ও অন্যটিকে কপালে বসিয়ে দেয়া হয়। শামুকগুলো ধীরে ধীরে মুখমণ্ডলে বিচরণ করে। বিউটিশিয়ানরা চোখ রাখেন, যেন শামুকগুলো মুখ, চোক ও নাকের খুব কাছে যেতে না পারে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *