সুলতানপুরের আরিফুল ও তার ভাই হাকিমের বিরুদ্ধে দামুড়হুদা থানায় যৌতুক নিরোধ আইনে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার সুলতানপুর গ্রামের দ্বীন মোহাম্মদের দু ছেলে আরিফুল ও হাকিমের বিরুদ্ধে যৌতুক নিরোধ আইনে মামলা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার মামলাটি রুজু করা হয়। মামলায় বলা হয়েছে, যৌতুকের দাবিতে স্বামী আরিফুল তার স্ত্রী সানজিদা খাতুনকে মারধর করে। ছোটভাই হাকিম তাতে প্ররোচণা করে।

চুয়াডাঙ্গা মানবতা সংস্থার নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় মামলার বাদী সানজিদা খাতুন গতকাল শনিবার দামুড়হুদা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মানবতা সংস্থা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, সুলতানপুরের দ্বীন মোহাম্মদের ছেলে আরিফুলের সাথে আনুমানিক ৩ বছর আগে পার্শ্ববর্তী ঠাকুরপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত শামসুর রহমানের মেয়ে সানজিদার বিয়ে হয়। সানজিদা অভিযোগ করে বলেছেন, স্বামী বিয়ের পর যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন শুরু করে। সুখের কথা ভেবে দাবিকৃত একটি মোটরসাইকেল দেয়া হয়। ঘরে আসে কন্যাসন্তান। এরপরও যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন থামেনি। নানা অজুহাতে নির্যাতন করতে থাকে। গত ২৫ সেপ্টেম্বর নির্যাতন করা হলে গুরুতর আহত হন সানজিদা। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, চিকিৎসা শেষে সানজিদা চুয়াডাঙ্গা মানবতা সংস্থার আইনগত সহায়তা প্রার্থনা করেন। এরই প্রেক্ষিতে গতকাল শনিবার তাকে সাথে নিয়ে দামুড়হুদা থানায় হাজির হয়ে মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলাটি গ্রহণকালে দামুড়হুদা থানার অফিসার ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আহসান হাবিব বলেন, মামলাটি গ্রহণ করা হলো। অভিযোগের সত্যতা যাচাই করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

মামলাটি পেশ করার সময় উপস্থিত ছিলেন মানবতার নির্বাহী পরিচালক অ্যাড. মানি খন্দকার, সমন্বয়কারী রউফুন নাহার রিনা, আইন কর্মকর্তা অ্যাড. কাইজার হোসেন জোয়ার্দ্দার, মোটিভেশন অফিসার জাকিয়া সুলতানা ঝুমুর, গণসংযোগ কর্মকর্তা হাফিজ উদ্দীন প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *