সার্ক স্যাটেলাইট তৈরির পরামর্শ মোদির

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের শ্রীহরিকোটায় ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চঅর্গানাইজেশনের (আইএসআরও) পিএসএলভি সি-২৩ রকেটের চতুর্থ বাণিজ্যিক উৎক্ষেপণসম্পন্ন হয়েছে।গতকাল সোমবারের এ উৎক্ষেপণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।ফ্রান্স, জার্মানি, কানাডা ও সিঙ্গাপুর- এ চারটি দেশের পাঁচটি কৃত্রিম উপগ্রহ নিয়ে২৩০ টনের পিএসএলভি সকাল ৯টা ৫২ মিনিটে গন্তব্যের উদ্দেশে রওয়ানা হয়।এরপরউপস্থিত বিজ্ঞানীদের উদ্দেশে দেয়া ভাষণে মোদি বলেন, ‘এ মিশনের সাফল্যেপ্রত্যেক ভারতীয়র বুক গর্বে ভরে গেছে, আমি আপনাদের মুখেও আনন্দ ও পরিতৃপ্তিলক্ষ্য করেছি।’ ‘আজকের এই কৃত্রিম উপগ্রহগুলি উন্নত দেশগুলোর। এটা আমাদের মহাকাশ কর্মসূচির বৈশ্বিক স্বীকৃতি।’ তিনি বলেন, ‘আমি শুনেছি হলিউডের গ্রাভিটি ছবিটির বাজেট আমাদের মঙ্গল কর্মসূচির থেকেও বেশি। যাই হোক এটি একটি অসাধারণ অর্জন।’ ভারতের মঙ্গলযান মঙ্গলায়নআগামী ২৪ সেপ্টেম্বর গ্রহটিতে পৌঁছবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।নিজেদেরমহাকাশ কর্মসূচির বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে মোদি বলেন, ‘আমরা অনেক কিছুকরেছি, কিন্তু মন আরও বেশি কিছু চায় (ইয়ে দিল মাঙ্গে মোর)।’ এ সময়উপস্থিত বিজ্ঞানীদের একটি সার্ক (দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা)স্যাটেলাইট তৈরি করার পরামর্শ দেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী।তিনি বলেন, ‘এটি আমাদের প্রতিবেশীদের সহায়তা করবে।’ মোদির ভাষণে তিনি নিজেকে মহাকাশ সমঝদার বলে তুলে ধরেছেন বলে ভাষণ শেষে প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন উপস্থিত বিজ্ঞানীরা।কৃষি ও অন্যান্য খাতে মহাকাশ প্রযুক্তিকে মোদি কাজে লাগাতে চান বলে জানিয়েছেন তার ঘনিষ্ঠজনেরা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *