সারাদেশে গণসংযোগের জন্য বিএনপির ৫৬টি টিম

চুয়াডাঙ্গার টিমে অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী মেহেরপুরে শামসুজ্জামান দুদু

 

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুরসহ সারাদেশে সাংগঠনিক শক্তির বৃদ্ধির লক্ষ্যে গণসংযোগ শুরু করেছে বিএনপি। কর্মসূচির অংশ হিসেবে ইতোমধ্যেই ৫৬টি সাংগঠনিক টিম গঠন করেছে বিএনপি। দেশের ৭৫টি সাংগঠনিক জেলা সফর করবে এ টিমগুলো। চুয়াডাঙ্গার টিমের নেতৃত্বে অ্যাড. নিতাই রায় চৌধুর, মেহেরপুরের টিমে শামসুজ্জামান দুদু। দলীয় সূত্র এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, দলের শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে সম্পাদকমণ্ডলীর নেতাদের নিয়ে এ সাংগঠনিক টিমগুলো গঠন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় নেতাদের সাথে যোগাযোগ করে এ সব টিমের সদস্যরা দু একদিনের মধ্যেই নির্ধারিত এলাকা‍গুলোতে সফরে যাবেন। কোনো কোনো টিম ইতোমধ্যেই রওনা হয়ে গেছে বলেও জানা গেছে। টিমের সদস্যরা আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত গণসংযোগের পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ে দলের নানা তথ্য সংগ্রহ করে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কাছে পেশ করবেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ৫৬টি টিমের প্রধান হিসেবে থাকছেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব, স্থায়ী কমিটির সদস্য, ভাইস চেয়ারম্যান, দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে শুরু করে সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যরা। কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাদের সমন্বয়ে প্রতিটি টিমে মোট দশজন করে সদস্য থাকবেন বলে জানা গেছে।

bnp-sm20130824055702

৫৬টি টিমের নেতৃ্ত্বদানকারীরা হলেন- ঢাকা মহানগর, মুন্সিগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেল‍া- মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিলেট জেলা ও মহানগর- ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও-লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান,  নারায়ণগঞ্জ- ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, দিনাজপুর- ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, রংপুর- ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ.স.ম হান্নান শাহ,  সিরাজগঞ্জ, রাজশাহী জেলা ও মহানগর- নজরুল ইসলাম খান, যশোর- তরিকুল ইসলাম, বরিশাল মহানগর ও বরিশাল উত্তর- মির্জা আব্বাস, ময়নমসিংহ উত্তর ও দক্ষিণ- ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া,  মাদারীপুর ও শরীয়তপুর- গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, চট্টগ্রাম উত্তর ও দক্ষিণ- এমকে আনোয়ার, ফরিদপুর- ড. আব্দুল মঈন খান।

কিশোরগঞ্জ ও ঝিনাইদহ- সাদেক হোসেন খোকা, নেত্রকোনা- বেগম সেলিমা রহমান, ঢাকা জেলা, নোয়াখালী ও নরসিংদী- আব্দুল্লাহ আল নোমান, রাজবাড়ী-চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, হবিগঞ্জ-শমসের মবিন চৌধুরী, কুমিল্লা দক্ষিণ- মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন,  কক্সবাজার- এম মোর্শেদ খান,  ভোলা- আলতাফ হোসেন চৌধুরী, পিরোজপুর- মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

নড়াইল-অ্যাডভোকেট আহমেদ আযম খান, বরগুনা- অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহাবুব হোসেন, টাঙ্গাইল- ড. ওসমান ফারুক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া- অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও ব্যারিস্টার শাজাহান ওমর, ফেনী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, লক্ষ্মীপুর- মুশফিকুর রহমান, রাঙামাটি- আব্দুল আউয়াল মিন্টু, বগুড়া ও পাবনা- ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ- ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, মেহেরপুর- শামসুজ্জামান দুদু, সৈয়দপুর-ফজলুর রহমান পটল।

মাগুরা ও বরিশাল দক্ষিণ- আমান উল্লাহ আমান, খুলনা জেলা ও মহানগর- মিজানুর রহমান মিনু, মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জ- মো. শাহজাহান, কুমিল্লা উত্তর- বরকত উল্লাহ বুলু, চাঁদপুর- সালাহউদ্দিন আহমেদ।

বান্দরবান- গোলাম আকবর খোন্দকার, কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধা-  আসাদুল হাবিব দুলু, কুষ্টিয়া- মশিউর রহমান, ঝালকাঠি ও পটুয়াখালী- অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান সারোয়ার, শেরপুর- ফজলুল হক মিলন।

সাতক্ষীরা- ড. আসাদুজ্জামান রিপন, জামালপুর- জয়নুল আবদিন ফারুক, গোপালগঞ্জ- কাজী আসাদুজ্জামান,  চট্টগ্রাম দক্ষিণ- আবুল খায়ের ভূঁইয়া, খাগড়াছড়ি- হাবিব-উন-নবী খান সোহেল,  লালমনিরহাট- শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, জয়পুরহাট- অ্যাডভোকেট হারুন আল রশিদ, নওগাঁ- মো. হারুন অর রশিদ, চুয়াডাঙ্গা ও বাগেরহাট- অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী এবং নাটোর- সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

Leave a comment

Your email address will not be published.