সাভারে জুয়েলারি ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি , চার কোটি টাকার সোনা লুট

মাথাভাঙ্গা অনলাইন :  সাভারে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে ডাকাতরা লুট করেছে কোটি টাকা মূল্যের অধিক স্বর্ণ ও স্বর্ণালঙ্কার । বাধা দিতে গিয়ে ডাকাতদের হামলায় আহত হয়েছে পাঁচজন। বৃহস্পতিবার ভোররাতে সাভার মডেল থানা সংলগ্ন দক্ষিণপাড়ায় ব্যবসায়ী প্রদীপ কুমার দাসের বাড়িতে এ  ঘটনা ঘটে।
প্রদীপ কুমার দাস সাভারের পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি। সাভার বাজারে বৃহত স্বর্ণের দোকান ছাড়াও বন্ধকি ব্যবসা করতেন তিনি।
তিনি  জানান, বৃষ্টির মধ্যে ড্রিল মেশিন  দিয়ে রেলিং ও তালা কেটে ২০-২৫ জনের সশস্ত্র একদল ডাকাত দল বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে। তারা দোতালায় উঠে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে বেঁধে ফেলে।এ সময় গৃহকর্ত্রী ও অন্যরা চিৎকার দিলে ডাকাতরা তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে জখম করে।
ডাকাতরা এ সময় ব্যবসায়ীর পরিবার ছাড়াও বন্ধক রাখা তিনটি সিন্ধুক ও চারটি আলমারি ভেঙে লুটে নেয় নগদ টাকাসহ সব স্বর্ণালঙ্কার। কমান্ডো স্টাইলে লুটপাট শেষে পালিয়ে যায় ডাকাতরা।পরে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে। ব্যবসায়ি প্রদীপ কুমার দাসের দাবি, লুণ্ঠিত স্বর্ণ ও স্বর্ণালঙ্কারের মূল্যমান চার কোটি টাকার ওপরে।
সাভার মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনাস্থল থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহারিত ড্রিল মেশিন ও লোহার পাইপ উদ্ধার করেছে। তবে জড়িতদের শনাক্ত কিংবা লুণ্ঠিত কোনো মালামাল উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।
সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তফা কামাল জানান, ডাকাতির কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পূর্বশত্রুতা কিংবা বন্ধকির বিষয়টি ডাকাতির নেপথে রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.