সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম সহিদুল ইসলাম বিশ্বাসের সপ্তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার: জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য সহিদুল ইসলাম বিশ্বাসের ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা বিএনপি একাংশের উদ্যোগে স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় বিএনপির কেদারগঞ্জস্থ কার্য্যালয়ের সামনে এ সভা ও মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, স্মরণসভা ও  দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য জেলা বিএনপির সভাপতি মুহা. অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস। সভায় মরহুমের কর্মজীবন ও রাজনৈতিক জীবনের ওপর স্মৃতিচারণ করেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি অ্যাড. এমএম শাহাজাহান মুকুল, আব্দুল হালিম হিরু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাসান ইমাম বকুল, যুগ্মসম্পাদক মাহমুদুল হক পল্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক রউফুন নাহার রীনা, সহসাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মনি, দফতর সম্পাদক আবু আলা সামছুজ্জামান, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. হেদায়েত হোসেন আসলাম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক বাড়াদী ইউপি চেয়ারম্যান তবারক হোসেন, পৌর বিএনপির সহসভাপতি আওরঙ্গজেব বেল্টু, অ্যাড. মানি খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল্লা জোয়ার্দ্দার ছটি, দামুড়হুদা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নতিপোতা ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনির, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক হাজি আব্দুল মান্নান, জেলা ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা আনোয়ার হোসেন, জেলা যুবদলের সদস্য সচিব সাইফুর রশিদ ঝন্টু, জেলা ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক শাহাজাহান খান, সদর উপজেলা বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান, শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নুর নবী সামদানী, চিৎলা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি শরিফুল ইসলাম মুকুল, মোমিনপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, পদ্মবিলা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রায়হান কাজল, চিৎলা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মহাসিন আলী বিশ্বাস, সদর উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক নুর গণি, জেলা তরুণ দলের আহ্বায়ক মাবুদ সরকার প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্মআহ্বায়ক একরামূল হক, জেলা ওলামা দলের যুগ্মআহ্বায়ক হাফেজ মাহাবুবুল আলম, সদর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মহাবুল হক, পৌর যুবদলের আহ্বায়ক হাজি রবিউল হক মল্লিক, দামুড়হুদা উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাহাবুবুর রহমান বাচ্চু প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *