সঙ্গীতাঙ্গনে পরিচিতমুখ মুক্তার মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে এখন হাসপাতালে

0
37

স্টাফ রিপোর্টার: সঙ্গীতাঙ্গনে পরিচিতমুখ মুক্তার মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছে। সে উম্মাদের মতো আচরণ করছে। কখনো জুড়ছে গান, কখনো দিচ্ছে আজান। শেষ পর্যন্ত তাকে গতকাল সোমবার চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। চিকিৎসক বলেছেন, এফিলএফসি রোগে আক্রান্ত হয়েছে।

‌                মুক্তার হোসেনের বয়স এখনও ত্রিশ পার হয়নি। বিয়েও করেনি। ওয়েভ ফাউন্ডেশনে চাকরি করে। অবসরে সঙ্গীত চর্চায় ব্যস্ত থাকে। শিল্পকলা একাডেমীসহ সঙ্গীতানুরাগীদের মাঝে ইতোমধ্যেই পরিচিতমুখ হয়ে উঠেছে মুক্তার। বাড়ি চুয়াডাঙ্গার নূরনগরে। পিতা মৃত আব্দুর রহিম। সদালাপী বিনয়ী মুক্তার বেশ কিছুদিন ধরে মৃগী রোগে ভুগছিলেন। পরিবারের সদস্যরা এ তথ্য দিয়ে বলেছে, মৃগীরোগ মাঝে মাঝে দেখা দেয়। যখন দেখা দেয়, তার আগে শারীরিক পরিবর্তন ঘটে। যে কোনো বিষয় নিয়ে খুব বেশি করে ঘাবড়ে যায়। গভীরভাবে চিন্তায় মগ্ন হয়ে পড়ে। এরকমই এক পরিস্থিতির মধ্যে হুট করে উম্মাদের মতো আচরণ করতে শুরু করে। কাউকে দেখলেই সে তাকে কদমবুচি করছে। লালনের গান গেয়ে মজানোর চেষ্টা করছে। অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থেকে জোর দিয়ে নাম ধরে ডাকছে। অবস্থাদৃষ্টে তাকে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করানো হয়েছে।

হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সউদ কবীর জন অসুস্থ মুক্তার হোসেন সম্পর্কে জানাতে গিয়ে বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ। প্রয়োজনীয় চিকিৎসায় গড়িমশির কারণে এখন জটিলরূপ ধারণ করেছে। আমরা চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here