শিশুদের নোবেলের জন্য মনোনীত মালালা

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাকিস্তানে তালেবান হত্যা প্রচেষ্টা থেকে বেঁচে যাওয়া কিশোরী মালালা ইউসুফজাই ‘ওয়ার্ল্ড চিলড্রেনস প্রাইজ’ এর জন্য মনোনীত হয়েছেন। এটি শিশুদের নোবেল পুরস্কার বলে পরিচিত। সুইডেনভিত্তিক ওয়ার্ল্ড চিলড্রেন প্রাইজ ফাউন্ডেশনের ওয়েব সাইটে বলা হয়, নারী শিক্ষার অধিকার বাস্তবায়নে মামলার সাহসী যুদ্ধের জন্য তাকে ২০১৪ সালের চিলড্রেনস প্রাইজের জন্য মানোনীত করা হয়েছে। গত বছরও জাতিসংঘ মানবাধিকার পুরস্কারসহ বিভিন্ন দেশ ও সংগঠনের পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন পাকিস্তানের গোড়া ধর্মপন্থি এলাকা সোয়াতের এ কিশোরী। ২০১২ সালের ৯ অক্টোবর পাকিস্তানে স্কুলবাসে উঠে মালালার মাথায় গুলি করে তালেবান জঙ্গিরা। তালেবানবিরোধী বক্তব্য ও লেখালেখি এবং নারীদের স্কুলে যাওয়ার অধিকারের পক্ষে সোচ্চার হওয়ার জন্যই হামলার শিকার হন তিনি। ওই সময় গুরুতর আহত মালালাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠেন। এরপর থেকে যুক্তরাজ্যেই বসবাস করছেন তিনি এবং সেখানকার স্কুলে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছেন। এ বছর মালালার সাথে যৌথভাবে ওয়ার্ল্ড চিলড্রেনস প্রাইজ পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি শিক্ষা দাতব্য সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা জন উড এবং নেপালে কারাবন্দী শিশুদের সহায়তায় নিয়োজিত মানবাধিকারকর্মী ইন্দিরা রামানগর। পুরস্কারের অর্থমূল্য একলাখ ডলার। অক্টোবরের কোনো একসময় সুইডেনের স্টকহোমে মনোনীতদের কাছে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে। ২০০০ সাল থেকে বিশ্বে শিশু অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা ব্যক্তি ও সংগঠনগুলোকে উৎসাহ দেয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে সুইডেন ভিত্তিক ওই ফাউন্ডেশন। বিশ্বের ১১০টি দেশের প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তাদের

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *