লন্ডনে অ্যাসিড হামলার শিকার দুই বাংলাদেশি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পূর্ব লন্ডনের বাংলাদেশি অধ্যুষিত বেথনালগ্রিন এলাকায় ‘অ্যাসিড হামলার’ শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত দুই তরুণ। গত মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেল ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আক্রান্ত তরুণদের একজন ২৪ বছর বয়সী শাখাওয়াত হোসেন। অপরজনের পরিচয় জানা যায়নি। পুলিশ বলছে, অ্যাসিড দিয়ে হামলা হয়েছে কি-না, তারা নিশ্চিত নয়। তবে অ্যাসিডের মতো মারাত্মক দাহ্য পদার্থ দিয়ে হামলা হয়েছে। যাতে দুই তরুণের মুখ ও ঘাড়ের চামড়া বিকৃত হয়ে গেছে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।  সাম্প্রতিক সময়ে লন্ডনে একের পর এক অ্যাসিড হামলা নিয়ে সৃষ্ট আতঙ্কের মধ্যেই এ ঘটনা ঘটল। গত দুই সপ্তাহে লন্ডনে অ্যাসিড-জাতীয় পদার্থ দিয়ে এটি তৃতীয় হামলার ঘটনা। বেথনালগ্রিন পুলিশ স্টেশনের খুব কাছে রোমান রোডে মঙ্গলবার এ হামলার ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আক্রান্ত হওয়ার পর দুই তরুণ বাংলাদেশি মালিকানাধীন একটি দোকানে গিয়ে সাহায্য চান। তারা বলেন, তাদের ওপর অ্যাসিড হামলা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও চিত্রে দেখা যাচ্ছে, পুলিশ ও হাসপাতালকর্মীরা দুই তরুণের আক্রান্ত স্থানে পানি ঢালছে। পরে তাদের হাসপাতালের ‘বার্ন ইউনিটে’ চিকিৎসা দেয়া হয়।
১৩ জুলাই লন্ডনে দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে পাঁচটি ভিন্ন স্থানে অ্যাসিড হামলার ঘটনা ঘটে। এর তিন দিন পর বাংলাদেশি অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকার মাইল অ্যান্ড এলাকায় দুজনের ওপর অ্যাসিড-জাতীয় তরল দিয়ে হামলা হয়।
কদিন আগে এই আতঙ্কে ইংল্যান্ডের ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্ট ব্লাস্ট টুর্নামেন্ট ছেড়ে দেশ ফিরে এসেছেন তামিম ইকবাল। যদিও দেশা ফেরা নিয়ে বাংলাদেশ দলের বাঁহাতি ওপেনার পরিষ্কার কিছু বলেননি।

 

 

Leave a comment

Your email address will not be published.