যুক্তরাষ্ট্রে চলতি বছর ৩৯ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুক্তরাষ্ট্র চলতি বছর ৩৯ জন অপরাধীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে। তবে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর ব্যয়বহুল হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে দেশটির কর্তারা উদ্বিগ্ন। জানা গেছে, প্রাণঘাতী ইঞ্জেকশনের স্বল্পতার কারণে যুক্তরাষ্ট্র মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে আনার চেষ্টা করছে। ২০১২ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ৪৩ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়। ২০১২ সালেও সমসংখ্যক অপরাধীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়। ১৯৭৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট পুনরায় মৃত্যুদণ্ডের বিধান অনুমোদন করার পর এ পর্যন্ত দেশটিতে বিভিন্ন অপরাধে ১৩শ’রও বেশি ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী ওকলাহোমায় ১৭ ডিসেম্বর চলতি বছরের শেষ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। ঘোড়ার এক প্রশিক্ষককে ছুরিকাঘাতে হত্যার অপরাধে প্রাণঘাতী ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে ওই ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে ৮০ ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তবে এ সংখ্যা ১৯৭৬ সালের পর থেকে সর্বনিম্ন। জরিপ সংস্থা গালপ জানিয়েছে, অক্টোবরে তাদের করা জরিপে দেখা গেছে, হত্যার শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডকে সমর্থন করেন যুক্তরাষ্ট্রের ৬০ ভাগ মানুষ। ১৯৭৬ সালে যখন মৃত্যুদণ্ড পুনরায় চালু হয় তখন এরপক্ষে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ৫৭ ভাগ মানুষ। ১৯৯৪ সালে সেটি বেড়ে দাঁড়ায় ৮০ শতাংশে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *