যশোর বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় গণিতের প্রশ্নপত্রে ভুল : বিভ্রান্তিতে পরিক্ষার্থী : উদ্বিগ্ন অভিভাবক মহল

স্টাফ রিপোর্টার: যশোর বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষার সাধারণ গণিতের বহু নির্বাচনী প্রশ্নে (এমসিকিউ) ছয়টি ভুল ধরা পড়েছে। ভুল প্রশ্নের উত্তর মেলাতে সময় নষ্ট হওয়ায় অনেক পরীক্ষার্থী নির্ধারিত সময়ে সব প্রশ্নের বৃত্ত ভরাট করতে পারেনি। গতকাল মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গাসহ সারাদেশে এসএসসির গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
তবে বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, যে প্রশ্নে পরীক্ষা হয়েছে সেটা যশোর বোর্ড তৈরি করেনি। আন্তঃবোর্ডের প্রণীত প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। ভুল প্রশ্নের বিষয়টি আগামী আন্তঃসভায় আমরা আলোচনার জন্য তুলবো। আর ভুল প্রশ্নের জন্য পরীক্ষার্থীদের পূর্ণ নম্বর দেয়া হবে।
যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার সাধারণ গণিত পরীক্ষায় অসদুপায় গ্রহণের অভিযোগে মাগুরা ও সাতক্ষীরায় একজন করে পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। পাশাপাশি ৫৮৪ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলো। চুয়াডাঙ্গার দুটি কেন্দ্রে বহু পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে ক্যালকুলেটার নিয়ে নেন ভ্রাম্যমাণ ভিজিলেন্স টিমের সদস্যরা। ওই সকল পরিক্ষার্থী নির্দিষ্ট মডেলের বাইরে সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করছিলো বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । এর বাইরে পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ হলেও এমসিকিউ প্রশ্নপত্রে ছয়টির সঠিক উত্তর দেয়া ছিলো না।
সঠিক উত্তর না পেয়ে একাধিকবার এসব ভুল প্রশ্নের উত্তর মেলাতে গিয়ে পরীক্ষার্থীদের সময় নষ্ট হয়েছে। ফলে অনেকেই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ৪০টি এমসিকিউ প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেনি। এ ব্যাপারে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, বিভিন্ন কেন্দ্র সচিবরা তাদের কাছে ফোন করে ভুল প্রশ্নের কথা জানিয়েছেন। তবে বেশির ভাগ কেন্দ্র সচিব প্রশ্নপত্রে তিনটি ভুল থাকার কথা জানিয়েছেন। বোর্ড বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে যদি প্রশ্নপত্রে ছয়টি ভুল থাকার প্রমাণ পায় তাহলে ব্যবস্থা নেবে। তবে এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকতে হবে।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বলেন, যেহেতু প্রশ্নপত্র যশোর বোর্ড করেনি, তাই যারা ভুল করেছে তাদের বিরুদ্ধে আমরা কোনো ব্যবস্থা নিতে পারছি না। তবে অবশ্যই আগামী আন্তঃবোর্ডের সভায় বিষয়টি উত্থাপন করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.