যশোর বন্ধুদের দিয়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

যশোর প্রতিনিধি: যশোরে স্বামীর ইচ্ছাতেই তার চার বন্ধুর কাছে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন এক নারী। এ ঘটনায় মামলা করতে গেলেও সংশ্লিষ্ট থানা মামলা নেয়নি বলে তিনি জানান। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ক্রাইম রিপোর্টার অ্যাসোসিয়েশনে (ক্র্যাব) এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ওই নারী। ভুক্তভোগী জানান, ২০১৫ সালে যশোরের নওয়াপাড়া বাজারের আল সেলিম হোটেলে কাজী ডেকে গোপনে তাকে বিয়ে করেন জনি সরকার। সম্প্রতি তিনি গর্ভবতী হন। কিন্তু জনি তাকে এখন স্ত্রী বলে স্বীকার করেন না। এদিকে স্বামী জনি তাকে গর্ভপাতের জন্য জোর করেন। তিনি রাজি না হওয়ায় তার (জনির) চার বন্ধু সাইফুর, সুমন, আজিম ও রুবেল তাকে ধর্ষণ করে। নির্যাতিতা ওই তরুণী বলেন, মীমাংসার কথা বলে ৭ জুলাই আমাকে হোটেল আল-সেলিমে ডেকে নিয়ে যাই। সেখান ওই চারজন আগ থেকে উপস্থিত ছিলো। তারা আমাকে গর্ভপাতের জন্য ডাক্তারের কাছে নিয়ে যেতে চাই। আমি ডাক্তারের কাছে যেতে রাজি হয়নি বলে জনির চার বন্ধু জোরপূর্বক আমাকে ধর্ষণ করে। সংবাদ সম্মেলনে ওই নারী আরও জানান, স্বামীর চার বন্ধু ধর্ষণের পর থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নেয়নি। স্বামী জনির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির সিডি থাকার পরও পুলিশ কোনো সহায়তা করছে না। জীবনের ভয়ে সপরিবার নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.