মোবাইলফোনে প্রেমের টানে ঈশ্বরদী থেকে জীবননগরে গ্যাঁড়াকলে প্রেমিক

জীবননগর ব্যুরো: মোবাইলফোনে প্রেমের টানে ঈশ্বরদী থেকে জীবননগর উপজেলার সুবলপুরে প্রেমিকা গৃহবধূর ঘরে গ্যাঁড়াকলে পড়েছে প্রেমিক আনারুল ইসলাম (২৫)। মধ্যরাতে এলাকাবাসী মোবাইলপ্রেমিক আনারুল ইসলামকে গৃহবধূর আফরোজা বেগম স্বপ্নার (২৮) ঘর থেকে আটক করে। আটককৃত দুজনকে দিনভর বেঁধে রাখে গ্রামবাসী। খবর পেয়ে দু সন্তানের জননী স্বপ্নার পরিবার সুবলপুর গ্রাম থেকে স্বপ্নাকে নিয়ে গেছে। এ সময় স্বপ্না তার স্বামী আব্দুর রউফ টিটোকে তালাক দেয়। আলোচিত এ ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাতে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, মাত্র মাস দেড়েক আগে জীবননগর উপজেলার সুবলপুর গ্রামের আব্দুর রউফ টিটোর স্ত্রী দু সন্তানের জননী আফরোজা বেগম স্বপ্নার মোবাইলফোনে প্রেম হয় পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার গোকুলনগর গ্রামের আফাজউদ্দিনের ছেলে আনারুল ইসলামের সাথে। গত শুক্রবার স্বামী টিটো তার শ্বশুরবাড়ি বোয়ালমারী গ্রামে গেলে স্ত্রী স্বপ্না এ সুযোগে প্রেমিক আনারুলকে তার বাড়িতে আসার দাওয়াত দেয়। প্রেমিকার আহ্বান পেয়ে আনারুল ঈশ্বরদী থেকে রওনা হয়ে রাত ১২টার দিকে এসে স্বপ্নার ঘরে ওঠে। ঘটনাটি প্রতিবেশীদের নজরে পড়ে। সকালে অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে এলাকাবাসী তাদের আটক করে। দিনভর এ ঘটনা নিয়ে নানা নাটকীয়তার পর স্বপ্নার পিত্রালয়ের লোকজন স্বপ্নাকে নিয়ে যায়। এর আগে গ্রাম্যসালিসে স্বপ্না তার স্বামী টিটোকে তালাক দিলে আলোচিত এ ঘটনার পরিসমাপ্তি ঘটে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *