মেহেরপুর-১ আসনে জাসদ মনোনীত শফিকুল ইসলাম কাজলের অভিযোগ

ষড়যন্ত্রের জাল বিছিয়ে নির্বাচন বানচালের চেষ্টা চলছে

স্টাফ রিপোর্টার: মেহেরপুর-১ আসনে জাসদ মনোনীত প্রার্থী শফিকুল ইসলাম কাজল বলেছেন, চক্রান্ত করে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রের জাল বিছিয়ে নির্বাচন বানচাল করার জন্যই আমাকে বিকেলে ডেকে মনোয়নপত্র প্রাথমিকভাবে বাতিলের কথা জানানো হয়। অন্যদের মনোনয়নপত্র বৈধ বা বাতিলের বিষয়টি চূড়ান্ত করা হলো দুপুরে, তখন আমার প্রার্থিতা বাতিল হলো না, অথচ বিকেলে ডেকে নিয়ে বাতিলের কথা জানিয়ে প্রয়োজনে আপিলের জন্য বলা কেন?

শফিকুল ইসলাম কাজল এক অভিযোগপত্রে বলেছেন, ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী যাচাই-বাছাইয়ের শেষ দিন ছিলো ৫ ডিসেম্বর। বেলা ১২টার সময় মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মেহেরপুর জেলার ৬ প্রার্থীকে মৌখিকভাবে বৈধ বলে ঘোষণা করেন এবং বলেন অ্যাড. ইয়ারুল ইসলামের প্রার্থিতা প্রাথমিকভাবে বাতিল করা হচ্ছে। আমার তথা জাসদ মনোনীত প্রার্থী শফিকুল ইসলাম কাজলকে বেলা ৩টা ৪০মিনিটের সময় ডিসি কার্যালয় থেকে ফোনে ডেকে নেয়া হয়। পরবর্তীতে জানানো হয় আপনার প্রার্থিতা বাতিল হয়েছে, আপনাকে আপিল করা লাগবে। পূর্বেই জেলা সদরের বর্তমান এমপি জয়নাল আবেদীন, অ্যাড. ইয়ারুল ইসলামের প্রার্থিতার ফর্ম অবৈধভাবে ভুল সংশোধন করে প্রার্থিতার বৈধতা দেয়া হয়। বাতিল আর বৈধ ঘোষণা আমাকে যেমন বিভ্রান্ত করেছে, তেমনই আমার প্রার্থিতাও ষড়যন্ত্র করে বাতিল করা হয়েছে।

শফিকুল ইসলাম কাজল আরো বলেছেন, চাহিদামতো সকল প্রকার কাগজপত্র সরবরাহ করার পর ক্রটি আছে কি-না জেলা নির্বাচন অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং ডিসির সহযোগিতা চাওয়ার পরও তা মেলেনি। প্রার্থিতা পেতে আপিল করার প্রক্রিয়া করা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *