মেহেরপুর বাস্তুহারা লীগের বিক্ষোভ-সমাবেশ অব্যাহত

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর বাস্তহারা লীগের সদস্য বিদ্যুতকে আটক ও জেলা বাস্তহারা লীগের সভাপতি ফিরোজ আলীসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের মতো শহরের সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত রেখেছে জেলা বাস্তুহারা লীগ।
গতকাল শনিবার বিকেল ৪টার দিকে জেলা বাস্তুহারা লীগের সভাপতি ফিরোজ আলীর সভাপতিত্বে শহরের হোটেল বাজার ৩ রাস্তার মোড়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ জয়নাল আবেদীন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মো. গোলাম রসুল। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা বাস্তুহারা লীগের সাধারণ সম্পাদক রাফিউল ইসলাম রকি, কার্যকরি সভাপতি রাহুল হোসেন রাকা, সহসভাপতি আলমগীর হোসেন, যুগ্মসম্পাদক আব্দুল মতিন, সদর থানা বাস্তুহারা লীগের সভাপতি সোহেল আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক এসএম. রাসেল, পৌর বাস্তুহারা লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মজিদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্মআহ্বায়ক মো. মতিউর রহমান মতিন, মেহেরপুর সদর থানা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক, জেলা আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক রিংকু মাহমুদ, গাংনী উপজেলা বাস্তুহারা লীগের সভাপতি নুরুন্নবী, আমঝুপি ইউনিয়ন বাস্তুহারা লীগের সভাপতি মো. রানা, সম্পাদক মইবুল হোসোন, পিরোজপুর ইউনিয়ন বাস্তুহারা লীগের সভাপতি মো. সুমন প্রমুখ। সমাবেশ শেষে জেলা বাস্তুহারা লীগের সভাপতি ফিরোজ আলীর নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহর প্রদক্ষিণ করে।
জেলা বাস্তুহারা লীগের সভাপতি ফিরোজ আলী জানান- বিদ্যুত নামের বাস্তুহারা লীগের এক কর্মীকে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে মেহেরপুর শহরের চক্রপাড়া জামে মসজিদ এলাকা থেকে সদর থানা পুলিশ আটক করে। এছাড়া জেলা বাস্তুহারা লীগের ১১ জনকে আসামী করে মেহেরপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সমাবেশে বক্তবা বাস্তুহারা লীগের সদস্য বিদ্যুতকে আটকের প্রতিবাদ ও তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন। এছাড়া বাস্তুহারা লীগের নেতা-কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারেরও দাবী করেন।
এদিকে মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবিব জানান, কতিপয় উশৃঙ্খল যুবক বৃহস্পতিবার সকালে মেহেরপুর বীজ প্রত্যায়ন কেন্দ্রে গিয়ে শ্রমিকদের কাজে বাধা দেয় এবং কাজ শেষে তারা বাইরে গেলে তাদের মারধর করে। মেহেরপুর সদর উপজেলার টেংগারমাঠ কাজিপুরপাড়ার জিল্লুর রহমান বাদী হয়ে চাঁদাবাজীসহ কয়েকটি ধারায় জেলা বাস্তুহারা লীগের সভাপতিসহ মোট ১১ জনকে আসামী করে মামলা করেছেন। তিনি আরো জানান, ওই মামলায় আটক বিদ্যুতকে শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *