মেহেরপুরে সাড়ে ৬শ হাঁসের মৃত্যু ॥ দায়ী জেন্টামাইসিন ভ্যাকসিন?

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুরে সাড়ে ৬শ পাতি হাঁসের মৃত্যু হয়েছে এবং ৫০ হাঁসের অবস্থা আশঙ্কাজনক। মঙ্গলবার রাতে মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি ইউনিয়নের ঝাউবারিয়া গ্রামের রাজন ডাক ফার্মে এ ঘটনা ঘটেছে। সংশ্লিষ্টরা বলেছে, জেন্টামাইসিন ভ্যাকসিন দেয়ার পরই হাঁস অসুস্থ হয়ে পড়ে। একের পর এক মরতে থাকে।
খামারমালিক রাজন মালিথা জানান, তার খামারের ১১শ পাতিহাঁস ছিলো। হাঁসের বাচ্চাগুলোকে সুস্থ রাখতে তিনি ভিটামিনের জন্য উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে যোগাযোগ করেন। পরে অফিসার জেন্টামাইসিন ভ্যাকসিন দেয়ার পরামর্শ দেন। প্রাণিসম্পদ অফিসার এসএম শরিফুল ইসলামের পরামর্শ অনুযায়ী হাঁসের শরীরে ভ্যাকসিনটি দিতে রাজি হয়। মঙ্গলবার বেলা ১১টার সময় উপজেলা থেকে তারা নিজেই ডাক্তার পাঠিয়ে দেন। তিনি জেন্টামাইসিন ভ্যাকসিনটি হাঁসগুলোর শরীরে পুশ করেন। আর ভ্যাকসিনটি দেয়ার ৬ ঘণ্টা পরেই হাঁসগুলো মারা যেতে থাকে। এ পর্যন্ত সাড়ে ৬শ হাঁসের মৃত্যু হয়েছে এবং ৫০টি হাঁস আশঙ্কাজনক রয়েছে। যার আনুমানিক মূল্য ৫ লাখ টাকা।
এদিকে প্রাণিসম্পদ অফিসার এসএম শরিফুল ইসলামের কাছে জানতে গেলে তিনি জানান, আমি এর আগেও এ ধরনের ওযুধ হাঁসের গায়ে পুশ করেছি। কিন্তু এতে কোনো হাঁসের বাচ্চার এ ধরনের সমস্যা হয়নি। তবে আমরা হাঁসগুলোকে পরীক্ষা করে দেখেছি। পরীক্ষা করে বুঝতে পারি হাঁসগুলো সাধারণভাবে দুর্বল থাকায় ভ্যাকসিনটি পুশ করার সাথে সাথে সহ্য করতে না পারায় মারা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *