মাহমুদুর রহমানের মুক্তি ও আমার দেশ খুলে দিতে বাংলাদেশকে চাপ দেবে যুক্তরাষ্ট্র

0
33

USA Congressman-pic

নিউইয়র্ক থেকে প্রতিনিধি
আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের কারাভোগ ও পত্রিকা বন্ধ রাখার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মার্কিন দুই কংগ্রেসম্যান। যুক্তরাষ্ট্র সফররত দৈনিক আমার দেশ-এর পলিটিক্যাল রিপোর্টার মাহাবুবুর রহমান স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় সাক্ষাত করতে গেলে কংগ্রেসম্যান ইভেট ডি ক্লার্ক ও হাকিম জেফ্রি এ উদ্বেগের কথা জানান। প্রয়োজনীয় তথ্য-প্রমাণ পেলে তারা মাহমুদুর রহমানের মুক্তি এবং পত্রিকা খুলে দিতে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের স্টেট ডিপার্টমেন্ট থেকে বাংলাদেশ সরকারকে চাপ প্রয়োগ করবেন বলে আশ্বাস দেন।
নিউইয়র্কের হোটেল রেডিসনে একটি কমিউনিটি অনুষ্ঠান শেষে দুই কংগ্রেসম্যানের সঙ্গে সাক্ষাতে আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের ওপর নির্যাতন, তারা কারাভোগ এবং পত্রিকা বন্ধ করে রাখার চিত্র তুলে ধরেন সাংবাদিক মাহাবুব। সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের দুই দফায় দীর্ঘ কারাভোগের ঘটনা শুনে উভয়েই দুঃখ প্রকাশ করেন এবং বাংলাদেশ সরকারের এমন আচরণে উদ্বেগ জানান।
সাক্ষাতে তারা বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন নিয়ে রাজনৈতিক সংকটের বিষয়ে জানতে চাইলে সাংবাদিক মাহাবুবুর রহমান সার্বিক পরিস্থিতি অবহিত করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া রাজনৈতিক দুরদর্শী হয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে তারা আশা প্রকাশ করেন। বলেন, একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক মনোভাবাপন্ন সরকার দায়িত্ব পাক, এটা যুক্তরাষ্ট্র চায়। এরপরও সংশ্লিষ্টদের কাছে তাদের অভিমত তুলে ধরবেন বলে জানান দুই কংগ্রেসম্যান।
যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভ ও কংগ্রেসম্যান ইভেট ডি ক্লার্ক বলেন, একজন পত্রিকার সম্পাদককে এভাবে বিনা বিচারে আটক রাখা মানবাধিকার লঙ্ঘণ। একটি সরকার এটা করতে পারে না। মিডিয়া বন্ধ রাখার সমালোচনা করে তিনি বলেন, আমি আশা করি – তোমার দেশের সরকার অবিলম্বে সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে মুক্তি দেবে এবং পত্রিকা প্রকাশের সব বাধা দূর করবে। পত্রিকা বন্ধ এবং সম্পাদককে কারাবন্দি রাখার বিষয়ে সার্বিক তথ্য-প্রমাণ দিলে তিনি স্টেট ডিপার্টমেন্টের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দেন।
কংগ্রেসম্যান হাকিম জেফ্রি আমার দেশ সম্পাদকের ওপর নির্যাতনের উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন- গণতন্ত্র, মুক্ত সাংবাদিকতা, মানবাধিকার ও আইনের শাসনের ওপর বিশ্বাস রেখে সরকার অবিলম্বে মাহমুদুর রহমানকে মুক্তি দেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here