মসজিদের উন্নয়নের কথা বলে তোলা তোলার সময় চুয়াডাঙ্গায় ১২ জনের একদল পুরুষ বেকায়দায়

স্টাফ রিপোর্টার: মসজিদ মাদরাসার উন্নয়নের নামে কিছু ব্যক্তি অর্থ বাণিজ্যে নেমেছে। সম্প্রতি মেহেরপুরে মাদরাসার নামে চাঁদা তোলার সময় কয়েক ছদ্মবেশি নেশাখোর ধরাপড়ার পর গতকাল বুধবার চুয়াডাঙ্গায় ধরাপড়েছে ১২ জনের একদল তোলাবাজ। তারা অবশ্য ক্ষমা চেয়ে ছাড়া পেয়েছে।

জানা গেছে, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর দায়েরপাড়া মধ্যপাড়া জামে মসজিদের উন্নয়নের নামে চাঁদার রশিদ ছাপিয়ে ১২ জনের একদল পুরুষ চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরে তোলা তুলতে শুরু করে। বাদুরতলার কয়েকজন ব্যবসায়ীর কিছু প্রশ্নের জবাব দিতে না পারলে সন্দেহের দৃষ্টিতে পড়ে। ১২ জনকেই আটকে পুলিশে খবর দেয়া হয়। এক পর্যায়ে ১২ জন মৌখিকভাবে ক্ষমা চেয়ে পার পান। তারা চুয়াডাঙ্গায় আর তোলা তুলবে না বলে অঙ্গীকার করে। এ সময় স্থানীয় ব্যবসায়ীরা তাদের নিকট থেকে চাঁদার রশিদ বহিগুলো নিয়ে রাখেন।

যে ১২ জন তোলা তোলার সময় ধরাপড়ে তারা পরিচয় দিতে গিয়ে বলেছে, সকলেরই বাড়ি দায়েরপাড়া গ্রামে। এরা হলো- আলম হোসেন (৬০), দোলাল (৬০), মোজাম্মেল (২২), শহিদুল ইসলাম (৫০), বদর উদ্দীন (৪৫), মতলেব (৮০), কাবের আলী (৩০), আবুল হোসেন (৫০), কাদের (৬৫), উজ্জ্বল (২৫), রফিকুল (২৫) ও কচিমুদ্দিন (৬০)।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *