মধুকে মাথাভাঙ্গা ও দর্শনা প্রেসক্লাব থেকে সামিয়ক বহিষ্কার

ফেনসিডিলসহ কোর্টচাঁদপুরে ধরাপড়া চারজনকে ঝিনাইদহ জেলহাজতে প্রেরণ

 

স্টাফ রিপোর্টার: ফেনসিডিলসহ কোটচাঁদপুরে গ্রেফতারকৃত জিল্লুর রহমান মধু, রঞ্জু, রবিউল ও জাহাঙ্গীরকে গতকাল শনিবার ঝিনাইদহ জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। গতপরশু প্রাইভেটকারযোগে দেড়শ বোতল ফেনসিডিল পাচারের সময় এরা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে।

জিল্লুর রহমান মধু দৈনিক মাথাভাঙ্গার কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি ছিলো। তাকে তার দায়িত্ব থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। দর্শনা প্রেসক্লাব থেকেও তাকে গতকাল সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। সে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা কার্পাসডাঙ্গার সিরাজুল ইসলামের ছেলে। গোপনে সে যে মাদকচক্রের সাথে হাত মিলিয়েছিলো তা ধরা পড়ার আগে বোঝাই যায়নি। স্থানীয় অনেকেই এরকমই মন্তব্য করে মাদকপাচারকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

জানা গেছে, কোর্টচাঁদপুর থানা পুলিশ গতপরশু কোর্টচাঁদপুর অডিটোরিয়ামের নিকট একটি প্রাইভেটকার চ্যালেঞ্জ করে। উদ্ধার হয় ফেনসিডিল। ধরা পড়ে চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গার সিরাজুল ইসলামের ছেলে জিল্লুর রহমান মধু, একই গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে রঞ্জু, খুলনা ফুলতলার দামুদর গ্রামের আবু বক্করের ছেলে রবিউল ইসলাম ও যশোর শার্শার নামাজ গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর। এদের বিরুদ্ধে ফেনসিডিল পাচার মামলা রুজু করে গতকাল আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

দর্শনা অফিস জানিয়েছে, প্রেসক্লাব দর্শনার সদস্যপদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার হলেন জিল্লুর রহমান মধু। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। ক্লাবের সভাপতি আওয়াল হোসেন সভাপতিত্ব করেন। ফেনসিডিল পাচারের ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে জিল্লুর রহমান মধুকে প্রেসক্লাব দর্শনার সদস্য পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *