ভারতে ধর্ষণ বন্ধে মোবাইলফোন নিষিদ্ধের সুপারিশ

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা বন্ধ করতে স্কুল ও কলেজেমুঠোফোন নিষিদ্ধ করতে সরকারকে সুপারিশ করেছে কর্ণাটক রাজ্যের বিধানসভারএকটি কমিটি।ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি ও নারীরবিরুদ্ধে অন্যান্য অপরাধ সংঘটনের জন্য মুঠোফোনকে দোষারোপ করেছে ওই কমিটি।প্রস্তাবটির প্রতি রাজ্যের নারী ও শিশু কল্যাণ কমিটিও সমর্থন জানিয়েছে।কমিটিমনে করে, স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীদের অতিমাত্রায় স্মার্টফোন ব্যবহার করাথেকে বিরত রাখা হলে নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতার মাত্রা কমে আসবে। কারণ এটিশিক্ষার্থীদের সামাজিক মাধ্যমে প্রবেশের অবাধ সুযোগ করে দেয়।গতশুক্রবার বিধানসভায় ওঠা ওই সুপারিশে বলা হয়েছে, ‘অনেক শিক্ষার্থী বিশেষ করেসংখ্যালঘুরা এমন সব নতুন মানুষের সাথে বন্ধুত্ব করে, যারা সত্যিকারেরবন্ধু নাও হতে পারে। এটাই নিপীড়নের সুযোগ করে দিতে পারে।’ তবেকমিটির এই প্রস্তাবের সাথে দ্বিমত পোষণ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীসিড্ডারামাইয়া। গতকাল শনিবার তিনি বলেছেন, ‘আমি প্রতিবেদনটি দেখিনি। তাইকোনো মন্তব্য করতে পারবো না। কিন্তু আমার ব্যক্তিগত মতামত হলো, এটা (মুঠোফোন) শিশুদের আচরণ প্রভাবিত করে না।’ কর্ণাটকে স্কুল ও কলেজেমুঠোফোন ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাব এটাই প্রথম নয়। এর আগেমুঠোফোন ব্যবহারের স্বাস্থ্যগত সমস্যার কথা বলে বিজেপিও এমন একটি প্রস্তাবদিয়েছিলো। তবে ওই প্রস্তাবে সবার সম্মতি মেলেনি।

Leave a comment

Your email address will not be published.