বৈধ অস্ত্র জমা নয় কেবল বহন নিষিদ্ধ

স্টাফ রিপোর্টার: ভোটের আগে অস্ত্র জমা রাখার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে কেবল ভোট কেন্দ্রের আশপাশে আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে সরকার। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে সব বৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ ২৩ থেকে ২৭ ডিসেম্বরের মধ্যে নিকটবর্তী থানা অথবা বৈধ ডিলারের কাছে জমা দেয়ার যে আদেশ দেয়া হয়েছিলো, গতকাল বৃহস্পতিবার তার একটি সংশোধনী দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের রাজনৈতিক অধিশাখার যুগ্মসচিব মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত সংশোধিত আদেশে বলা হয়-দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময়ে লাইসেন্সধারী ব্যক্তিদের আগ্নেয়াস্ত্র জমা দেয়ার আদেশ-পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হলো। যেসব এলাকায় নির্বাচন হচ্ছে, সেসব এলাকায় ২৭ ডিসেম্বর থেকে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ভোটকেন্দ্র এবং এর আশেপাশের এলাকায় লাইসেন্সধারী ব্যক্তিদের আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে চলাচল এবং তা প্রদর্শন নিষিদ্ধ থাকবে। তবে নির্বাচনের সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট যেকোনো লাইসেন্সধারীকে তার আগ্নেয়াস্ত্র জমা দেয়ার নির্দেশ দিতে পারবে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়।
এর আগে গত ২৩ ডিসেম্বর মন্ত্রণালয়ের আদেশে বলা হয়েছিলো-লাইসেন্সধারীদের আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত থানায় জমা রাখা হবে। এ আদেশ লঙ্ঘন করা হলে আইন অনুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *