বিশ্ব টুকিটাকি : লিবিয়ায় আইএস ঘাটিতে মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ৪০

লিবিয়ায় আইএস ঘাটিতে মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ৪০
মাথাভাঙ্গা মনিটর: লিবিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় সবরাথা শহরে মার্কিন বিমান হামলায় ৪০ জন নিহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার এমনটাই জানিয়েছে শহরটির মেয়র। শহরের কাসর তালিল এলাকায় বাড়িঘরের ওপর এ বিমান হামলা হয়। এতে ৪০ জন নিহত হওয়া ছাড়াও ৬ জন আহত হয়েছে। সবরাথা শহরটি তিউনিসিয়া সীমান্তের কাছে। আর এ এলাকার কিছু অংশে ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিদের উপস্থিতি থাকার কথাও জানিয়েছেন পশ্চিমা কর্মকর্তারা। যুক্তরাষ্ট্রের জঙ্গি বিমান শুক্রবার লিবিয়ার আইএস এর শিবিরগুলোতে দলটির ঊর্ধ্বতন এক সদস্যকে লক্ষ্যে করে বিমান হামলা চালায়। এক পশ্চিমা কর্মকর্তা সিএনএন কে একথা জানিয়েছেন।

কেনিয়ার রাজধানীতে ঘুরে বেড়াচ্ছে দুই পলাতক সিংহ
মাথাভাঙ্গা মনিটর: কেনিয়ার রাজধানীর ন্যাশনাল পার্ক থেকে দুটি সিংহ পালিয়ে গিয়ে শহরের জনবসতিপূর্ণ এলাকার দিকে চলে গেছে। দেশটির বন্যপ্রাণী সার্ভিস (কেডব্লিউএস) গতকাল শুক্রবার নাইরোবির জাতীয় পার্ক থেকে পালানো সিংহদুটিকে ধরতে সাহায্যের আহ্বান জানিয়েছে। কেডব্লিউএস মুখপাত্র পল উদোতো বলেন, ‘সিংহ বিপজ্জনক বন্য প্রাণি। তাই তাদের মুখোমুখি হয়ে উত্তেজিত না করার আহ্বান জানানো হয়েছে।’ বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার কমপক্ষে দুটি সিংহ পার্ক থেকে পালিয়ে যায়। ১১৭ বর্গকিলোমিটার জুড়ে এ পার্ক বিস্তৃত। প্রায় সাত কিলোমিটার দূরে অবস্থিত সুউচ্চ সিটি সেন্টার থেকে পার্কে থাকা ষাঁড় ও গণ্ডারের গর্জন শোনা যায়।

ক্যামেরুনে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ১৯
মাথাভাঙ্গা মনিটর: ক্যামেরুনের একটি মার্কেটে দুটি আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ১৯ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও অর্ধশতাধিক লোক। গতকাল শুক্রবার দেশটির উত্তরাঞ্চলের ওই মার্কেটে এ আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়। দেশটির কর্মকর্তারা জানান, দুইজন হামলাকারী মার্কেটের ভেতরে ঢুকে হামলা চালায়। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। তবে এখনো কেউ হামলার দায় স্বীকার করেনি। ধারণা করা হচ্ছে জঙ্গি সংগঠন বোকো হারামই এই হামলা চালিয়েছে।

আইভরি কোস্টে সাবেক প্রেসিডেন্ট হত্যা: সেনা কর্মকর্তার যাবজ্জীবন
মাথাভাঙ্গা মনিটর: আইভরি কোস্টের সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট গুইকে হত্যার দায়ে দেশটির সামরিক বাহিনীর তিন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার একটি সামরিক ট্রাইব্যুনাল এ রায় ঘোষণা করে। রায়ে হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্যান্যের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। ১৯৯৯ সালে আইভরি কোস্টে এক সামরিক অভ্যুত্থানের পর গুইকে রাষ্ট্রপ্রধান ঘোষণা করা হয়। কিন্তু একবছর পর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে তিনি লরেন্ট বাগবোর কাছে পরাজিত হন। ক্ষমতা ছাড়ার দুবছর পর ২০০২ সালের একদিন বাণিজ্যিক রাজধানী আবিদজানের একটি রাস্তার পাশে গুইয়ের বুলেটে ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ পাওয়া যায়। এ সময় দেশটিতে আরেকটি অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা চলছিলো।
এক দশকেরও বেশি সময় ধরে রাজনৈতিক হানাহানি চলার পর আইভরি কোস্ট এখন একটি মীমাংসা প্রক্রিয়ার ভিতর দিয়ে অতীতের বিবাদ মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *