দেশের টুকিটাকি : বোনকে হত্যার দায়ের ভাইয়ের ফাঁসির আদেশ

ব্রিটিশ হাইকমিশনারের ওপর হামলা : ডেথ রেফারেন্সের রায় ১১ ফেব্রুয়ারি
স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশে নিযুক্ত সাবেক ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলার ডেথ রেফারেন্সের ওপর আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি রায় ঘোষণা করবে হাইকোর্ট। গতকাল বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমীর হোসেনের ডিভিশন বেঞ্চ শুনানি শেষে রায়ের জন্য এই দিন ধার্য করেন। রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শুনানিতে বলেন, ২০০৪ সালে রমনার বটমূলে, গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়া ও হযরত শাহজালাল (র)’র মাজারে গ্রেনেড হামলায় আসামিরা জড়িত ছিলেন। তারাই এসব হামলা সংঘটিত করেছে। শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রায়ের জন্য দিন ধার্য করে দেন। ২০০৪ সালে সিলেটের হযরত শাহজালাল (র)’র মাজারে ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর হামলা করে আসামিরা। ওই হামলায় আনোয়ার চৌধুরী প্রাণে বেঁচে গেলেও বেশ কয়েকজন হতাহত হন। এই ঘটনায় দায়ের কথা হত্যা মামলায় হুজি নেবোনকে হত্যার দায়ের ভাইয়ের ফাঁসির আদেশতা মুফিতি হান্নানসহ তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড ও দুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়। এই রায়ের বিরুদ্ধে আসামিরা আপিল করে। পাশাপাশি মামলাটি ডেথ রেফারেন্স আকারে হাইকোর্টে আসে। দীর্ঘ এক যুগ পর এই ডেথ রেফারেন্সের শুনানি শেষ হলো।

স্টাফ রিপোর্টার: কক্সবাজারের চকরিয়ায় বোনকে হত্যার দায়ে ভাইকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। গতকাল বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হক এনাম চৌধুরী এই আদেশ দেন। দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত নুরুল আমিন পলাতক রয়েছেন। মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০০৮ সালের ২৬ নভেম্বর বোন জাহানারা বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করে নুরুল আমিন। জাহানার ছেলের সাথে নুরুল আমিনের ঝগড়ার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়। এই জাহানারার মেয়ে কোহিনুর আক্তার বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

দিনাজপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক খাদে : নিহত ৪
স্টাফ রিপোর্টার: দিনাজপুরের ফুলবাড়ির পার্শ্ববর্তী বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি এলাকায় গত মঙ্গলবার দিনগত রাত সোয়া ১২টার দিকে কাঠ ভর্তি ট্রাক (ঢাকা- মেট্রো-ট-১৬-৯৯১০) উল্টে ৪জন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৫জন। তবে ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। নিহত ৪জন হলেন- দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের শকুনখোলা গ্রামের মৃত নওয়াব আলীর ছেলে জাফিরুল ইসলাম (৪০), আব্দুল মালেকের ছেলে রেজাউল করিম (৩৭), মৃত আব্দুল করিমের ছেলে ইসমাইল হোসেন (৩৬) ও আশু সিংয়ের ছেলে দীলিপ সিং (৩৭)। আহত ৫জন হলেন- একই গ্রামের মৃত নওয়াব আলীর ছেলে মজিবর রহমান (৩৫), মৃত হেসাব উদ্দিনের ছেলে বাবলু মিয়া (৩৯), মৃত আজগর আলীর ছেলে আতিকুর রহমান আতি (৩৬), ওসমান গণির ছেলে তাজুল ইসলাম (৪১) ও মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে আসাদ আলী (৩২)। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ছয়টি হাতি মিলে পিষে মেরে ফেললো লোকটিকে
স্টাফ রিপোর্টার: রামু একটি বন্য হাতি অধ্যুষিত এলাকা। কিছুদূর পরপরই এখানে বন বিভাগের হাতি বিষয়ক সতর্কবার্তা চোখে পড়বে। নাইক্ষ্যংছড়ির সোনাইছড়ি থেকে এক ঝুড়ি দেশি মাছ কিনে ফিরছিলেন পরেশ বড়ুয়া। তিনি একজন মাছ ব্যবসায়ী। সোনাইছড়ি থেকে মাছ কিনে রামুতে এনে বিক্রি করাই তার পেশা। গতকাল বুধবার ভোর ৬টার দিকে রামুর সীমান্ত দিয়ে যখন ঢুকছেন তখনই দেখতে পান ৪টি হাতি তার পথরোধ করে দাঁড়িয়ে আছে। দেখেই বোঝা যাচ্ছিলো ক্ষিপ্ত। প্রাণভয়ে তিনি উল্টো দিকে ছুটে পালাতে গিয়ে দেখেন সেদিক থেকে এগিয়ে আসছে আরো দুটো হাতি। তারপরের ঘটনা অনুমিত, উন্মত্ত হাতির পাল পদপিষ্ট করে মেরে ফেলে তাকে। ঘটনাস্থল ঘুরে এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে ঘটনার এই বর্ণনা দিচ্ছিলেন রামু থানার একজন উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম। মৃতদেহ দেখে ফিরে মি. ইসলাম বলছিলেন, পাড়াইয়া তার এমন অবস্থা করছে একটা হাড্ডিগুড্ডিও আস্ত রাখে নাই। রামুর এই অংশটি মূলতঃ বন্য হাতি অধ্যুষিত।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *