বিশ্ব টুকিটাকি : চীন ও ভারত সীমান্তে টান টান উত্তেজনা: মুখোমুখি সেনাবাহিনী

নতুন রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের ভাষণ নিয়ে কংগ্রেসবিজেপির তুমুল বাদানুবাদ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের চতুর্দশ রাষ্ট্রপতির ভাষণের বিষয়বস্তু নিয়ে গত বুধবার তুলকালাম হল রাজ্যসভায়। লড়াইটা কংগ্রেস সাংসদ আনন্দ শর্মা বনাম বিজেপি সাংসদ, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির মধ্যে শুরু হলেও তা পরে শাসক জোট ও বিরোধীদের মধ্যে তুমুল বাদানুবাদ পর্যন্ত গড়ায়। আনন্দের বক্তব্যটি সভার রেকর্ড থেকে বাদ দেওয়ার আর্জি জানান অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। এদিন রাজ্যসভার ‘জিরো আওয়ার’ এ তার ভাষণের শুরুতেই কংগ্রেস সাংসদ আনন্দ শর্মা মঙ্গলবার সংসদে দেয়া রাষ্ট্রপতির উদ্বোধনী ভাষণের একটি অংশ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পরোক্ষে প্রশ্ন তোলেন, দেশের চতুর্দশ রাষ্ট্রপতির উদ্বোধনী ভাষণে মহাত্মা গান্ধী ও দীন দয়াল উপাধ্যায়ের নামোল্লেখ থাকলেও কেন আধুনিক ভারতের রূপকার জওহরলাল নেহরুর কথা একবারও বলা হল না? আনন্দ বলেন, ‘সব দেশই তাদের রূপকারদের সম্মান জানায়। সেটা ভারতেরও সংস্কৃতি। মহাত্মা গান্ধীর মতো জওহরলাল নেহরুরও একটা মর্যাদার আসন রয়েছে এই দেশে। নেহরু দেশকে স্বাধীন করতে জেলও খেটেছিলেন।’

চীন ভারত সীমান্তে টান টান উত্তেজনা: মুখোমুখি সেনাবাহিনী

মাথাভাঙ্গা মনিটর: চীন ও ভারত সীমান্তে টান টান উত্তেজনা চলছে। হিমালয়ের দুর্গম দোকলাম উপত্যকায় উভয়দেশের সৈন্যরা মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। এদিকে পরমাণু শক্তিধর দেশদুটির এ টানাপড়েনে জড়িয়ে পড়েছে ছোট দেশ ভুটান। এক মাসের বেশি সময় ধরেই চীন ও ভারতের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা চলছে । উভয় দেশই সৈন্য প্রত্যাহারে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলটির ওপর দুপক্ষই নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চাইছে। স্থানটিকে কেন্দ্র করে দেশদুটির মধ্যে অতীতেও আস্থাহীনতা দেখা দিয়েছিলো।  বিশ্লেষকরা জানান, যে এলাকাটিকে নিয়ে ভারত ও চীনের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে সেটা চীন ও ভুটানের মধ্যে অবস্থিত। কিন্তু সম্প্রতি চীন সেখানে তাদের সৈন্যদের উপস্থিতি বাড়ানোয় ভারতের মধ্যে কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ স্থানটিকে নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। তাই ভারতও অঞ্চলটিতে তাদের সামরিক সক্ষমতা জানান দিচ্ছে। জুন মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে সীমান্তে গোলযোগ দেখা দেয়। চীন সৈন্যরা দোকলাম অঞ্চলের মধ্য দিয়ে দেশটির একটি রাস্তা বাড়ানো শুরু করলে এই উত্তেজনা শুরু হয়।

আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় ২৬ সেনার মৃত্যু

মাথাভাঙ্গা মনিটর: আফগানিস্তানের কান্দাহারের খাকরেজ জেলার কারজালি এলাকায় সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে ২৬ সেনাকে মেরে ফেলেছে তালেবান জঙ্গিরা। ভয়াবহ এ হামলায় আরো অন্তত ১৩ জন সেনা গুরুতর আহত হয়েছে। আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দৌলত ওয়াজিরি জানিয়েছেন, সেনাদের পাল্টা গুলিতে মৃত্যু হয়েছে অনেক জঙ্গিরও। কারজালির বাসিন্দারা জানান, বুধবার রাতে অন্তত তিরিশটি গাড়িতে করে শ খানেক জঙ্গি সেনা ঘাঁটিতে আক্রমণ চালায়। প্রথমেই গোটা শিবির ঘিরে ফেলে তারা। তার পরই স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে ছুটে আসে ঝাঁকে ঝাঁকে গুলি। একটি আউটপোস্ট দখল করে সেনাদের অনেক অস্ত্র লুঠ করে জঙ্গিরা। পরে সেই আউটপোস্ট জঙ্গিমুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে সেনারা। দেশটির সরকারি সূত্রের খবরে বলা হয়েছে, গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হয়েছে আশিরও বেশি জঙ্গির। হামলার পর পরই গোটা ঘটনার দায় স্বীকার করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বিবৃতি দেয় তালেবান।

মৃত স্বামীর ঔরসে সন্তান

মাথাভাঙ্গা মনিটর: স্বামীর মৃত্যু হয়েছে প্রায় আড়াই বছর আগে। সেই স্বামীর ঔরসেই এবার সন্তান জন্ম দিলেন এক মা। বাবার মতোই দেখতে ফুটফুটে ওই কন্যাশিশুর নাম রাখা হয়েছে অ্যাঞ্জেলিনা। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, পেই জিয়া নামের ওই নারী গত মঙ্গলবার নিউইয়র্কের ওয়েইল করনেল হাসপাতালে কন্যাশিশুর জন্ম দেন। নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ ডিপার্টমেন্ট (এনওয়াইপিডি) এক ব্লগ পোস্টে মা ও শিশুর ছবি পোস্ট করেছে। ওই ছবিতে শিশুটির মাথায় এনওয়াইপিডির ক্যাপ পরানো ছিলো। প্রতিবেদনে বলা হয়, পেই জিয়ার স্বামী ওয়েনজিয়ান লিউ নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ ডিপার্টমেন্টের গোয়েন্দা বিভাগে কর্মকর্তা ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *