বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতদের প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

 

স্টাফ রিপোর্টার:  সংসদীয় আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতরা কেন অবৈধ নয়- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল রোববার বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মোহাম্মদ খুরশিদ আলম সরকারের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। একই সাথে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ১৯ ধারা কেন সংবিধানপরিপন্থি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়েছেন আদালত। এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদসচিব, আইনসচিব, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশন সচিবকে ১০ দিনের মধ্যে রুলের জবাব দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার আবদুস সালাম সুপ্রিমকোর্টে রিট আবেদনটি করেন। রিটের ওপর প্রাথমিক শুনানি শেষে এ রুল জারি করা হয়। রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী হাসান এমএস আজিম,  রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটনি জেনারেল মো. আল আমীন সরকার। গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ১৯ ধারা অনুসারে, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের পর বা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের পর একক প্রার্থী থাকলে তাঁকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা যায়। এটি সংবিধানের ৭, ১১, ২৭, ৩১, ৬৫ (২), ১২১ ও ১২২ (২) অনুচ্ছেদের পরিপন্থি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *